জাফরান চাষ করে মাসে ৩ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন! কিভাবে করবেন, শিখে নিন পদ্ধতি

জাফরান চাষ করে মাসে ৩ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন! কিভাবে করবেন, শিখে নিন পদ্ধতি
14 Oct 2022, 11:53 AM

জাফরান চাষ করে মাসে ৩ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন! কিভাবে করবেন, শিখে নিন পদ্ধতি

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: জাফরান বীজ বপন বা রোপণের আগে মাঠ প্রস্তুত করা হয়। শেষ চাষের আগে ৯০ কেজি নাইট্রোজেন, ৬০ কেজি ফসফরাস এবং পটাস প্রতি হেক্টর জমিতে ২০ টন গোবর প্রয়োগ করে মাটি ভঙ্গুর করে তোলে।

বর্তমানে শিক্ষিত মানুষও কৃষির দিকে ঝুঁকছে। যেহেতু ভারত একটি কৃষিপ্রধান দেশ তাই আজও ভারতের জনসংখ্যার একটি বড় অংশ কৃষির উপর নির্ভরশীল।এমন পরিস্থিতিতে চাষাবাদের মাধ্যমেও আপনি মোটা অঙ্কের টাকা আয় করতে পারেন। আমরা আপনাকে এমন একটি ব্যবসার কথা বলব যেখানে আপনি ঘরে বসেই লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন।

জাফরান চাষের কথা বলছি। জাফরান চাষ করে, আপনি প্রতি মাসে ৩ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা এবং আরও বেশি আয় করতে পারেন। জাফরানের দাম এত বেশি যে এটি লাল সোনা নামে পরিচিত। বর্তমানে ভারতে জাফরানের দাম প্রায় ২,০৫,০০০ থেকে ৩,০০,০০০ প্রতি কেজি। এই জন্য ১০ ভালভ বীজ ব্যবহার করা হয়। এর দাম প্রায় ৫৫০ টাকা।

জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময়কে ফসল রোপণের উপযুক্ত সময় বলে মনে করা হয়। জাফরান বীজ বপন বা রোপণের আগে মাঠটি ভালভাবে চাষ করা হয়। এ ছাড়া শেষ চাষের আগে হেক্টর প্রতি ৯০ কেজি নাইট্রোজেন, ৬০ কেজি ফসফরাস এবং পটাস সহ ২০টন গোবর সার জমিতে প্রয়োগ করা হয় যাতে মাটি ভঙ্গুর হয়। এতে জাফরানের ফলন বাড়ে। 

উঁচু পাহাড়ি এলাকায় জাফরান লাগানোর উপযুক্ত সময় জুলাই থেকে আগস্ট। একই সময়ে, জুলাইয়ের মাঝামাঝি এটির জন্য একটি ভাল সময় হিসাবে বিবেচিত হয়। সমভূমিতে, জাফরান বীজ ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে বপন করা হয়। গত কয়েক বছর ধরে হরিয়ানা, রাজস্থান ও উত্তরপ্রদেশ সহ অনেক রাজ্যে এর চাষ শুরু হয়েছে।

জাফরান চাষের জন্য উপযুক্ত সূর্যালোক প্রয়োজন। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৫০০ থেকে ২৫০০ মিটার উচ্চতায় জাফরান চাষ করা হয়। শীত ও বর্ষাকালে জাফরান চাষ করা হয় না। যেখানে গরম আবহাওয়া থাকে সেখানে চাষ করা ভালো।

Mailing List