গৃহবন্দি জিনপিং! কেন? চিনা মানবাধিকার কর্মীর টুইট ঘিরে তুমুল জল্পনা  

গৃহবন্দি জিনপিং! কেন? চিনা মানবাধিকার কর্মীর টুইট ঘিরে তুমুল জল্পনা   
25 Sep 2022, 01:50 PM

গৃহবন্দি জিনপিং! কেন? চিনা মানবাধিকার কর্মীর টুইট ঘিরে তুমুল জল্পনা

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: গৃহবন্দি করা হয়েছে চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে। তবে কি কোনও অভ্যুত্থান হতে চলে লাল চিনে? শনিবার থেকে এ প্রশ্নে তোলপাড় গোটা বিশ্ব। গোটা ঘটনার মূলে এক চিনা মানবাধিকার কর্মীর একটি টুইট। সেই টুইটে এমনই চাঞ্চল্য কর দাবি করেছেন ওই মানবাধিকার কর্মী জেনিফার জেং। টুইটে জিনপিংকে গৃহবন্দি করা ছাড়াও একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন জেং। তারপর থেকে সোশ্যাল মিডিয়া উত্তাল জেংয়ের টুইট ঘিরে।

ওই টুইটের পর ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও বেজিং থেকে কোনও প্রতিক্রয়া মেলেনি। জেংয়ের দাবি উড়িয়ে দিয়েও পালটা কিছু বলেনি বেজিং। এতে গোটা ঘটনা নিয়ে জল্পনা আরও বাড়ছে। আপাতত বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় জেংয়ের টুইট ট্রেন্ডিং হয়ে গেছে। বিশ্বের সেরা শক্তিধর দেশগুলির মধ্যে অন্যতম চিন। সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন পোস্ট থেকে জানা গিয়েছে, সেদেশের প্রেসিডেন্ট তথা চিনা কমিউনিস্ট পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি শি জিংপিংকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। আগামী মাসে চিনে কমিউনিস্ট পার্টি ২০ তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা, তার আগে সোশ্যাল মিডিয়ার একের পর এক পোস্টে নানা জল্পনা ছড়াচ্ছে। চিনা প্রেসিডেন্ট হিসেবে পিপলস লিবারেশন আর্মি বা চিনা সেনাবাহিনীর সর্বাধিনায়কের পদে রয়েছেন জিংপিং। তাঁকে গৃহবন্দি করা হয়েছে অথচ এ নিয়ে এখনও কোনও সরকারি প্রতিক্রিয়া মেলেনি। জেংয়ের টুইট করা ভিডিয়োও চিনের রাস্তায় বেশ কিছু সেনাবাহিনীর গাড়িকে ছুটতে দেখা গিয়েছে।

জেং জানিয়েছেন, সেনাবাহিনীর গাড়ির কনভয় ৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ ছিল এবং তাঁর মতে সম্ভবত চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিংপিংকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। জেং টুইটারে লেখেন, লাল ফৌজের সামরিক বাহিনী ২২ সেপ্টেম্বর বেজিংয়ের দিকে রওনা দিয়েছে। বেজিংয়ের কাছে কাছে হুয়ানলাই কাউন্টি থেকে শুরু হয়ে হেবেই প্রদেশের ঝাংজিয়াকো শহরে শেষ হয়েছে এই কনভয়। শোনা যাচ্ছে জিংপিংকে গৃহবন্দি করা হয়েছে এবং তাঁকে পিএলএ প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। একটি সুত্রের দাবি, সেনা অভ্যুত্থান ঘটিয়ে ক্ষমতা দখল করেছেন লাল ফৌজের জেনারেল লি কোয়াওমিং। তবে এই ঘটনা কতদূর সত্যি বলা কঠিন।

Mailing List