করোনার চেয়ে ভয়াবহ ভাইরাস আসছে! পৃথিবীতে ফের মহামারির আশঙ্কার কথা শোনালেন বিশেষজ্ঞরা, কবে, কীভাবে ছড়াবে সেই ভাইরাস?

করোনার চেয়ে ভয়াবহ ভাইরাস আসছে! পৃথিবীতে ফের মহামারির আশঙ্কার কথা শোনালেন বিশেষজ্ঞরা, কবে, কীভাবে ছড়াবে সেই ভাইরাস?
21 Oct 2022, 10:15 PM

করোনার চেয়ে ভয়াবহ ভাইরাস আসছে! পৃথিবীতে ফের মহামারির আশঙ্কার কথা শোনালেন বিশেষজ্ঞরা, কবে, কীভাবে ছড়াবে সেই ভাইরাস?

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদনঃ করোনা ভাইরাস এখনও পুরোপুরি অতীত হয়ে যায়নি। একটা ভাইরাস গোটা পৃথিবীকে প্রায় দু’বছর ঘরবন্দি করে রেখেছিল। কোভিড-১৯ আসার আগে অবধি এমন একটা ছিল পরিস্থিতি ছিল আমাদের কল্পনার অতীত। কিন্তু পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হওয়ার আগেই বিশেষজ্ঞরা ফের নতুন মহামারির ভবিষদ্বাণী করে দিলেন। তাঁদের আশঙ্কা, পরবর্তী মহামারি বাদুড় বা ইঁদুরের মতো কোনও জন্তু, জানোয়ার নয়, মহামারি হতে পারে দ্রুত গলে যাওয়া হিমবাহ থেকে। বিশ্ব উষ্ণায়নের জেরে গলছে হিমবাহ। আর তাতেই উঠে আসছে নানা ভয়াবহ বিপদ।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, বিশ্বজুড়ে জলবায়ু পরিবর্তনের জেরে  হিমাবাহগুলি দ্রুত গলতে শুরু করেছে। সেখানকার মাটির জেনেটিক অ্যানালিসিস করে দেখা যাচ্ছে, হিমবাহ দ্রুত গলার ফলে ভাইরাল স্পিল ওভার হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। ভাইরাল স্পিল ওভার হল এমন একটি প্রক্রিয়া, যেখানে কোনও ভাইরাস সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য নিজের চরিত্র প্রয়োজন মতো পরিবর্তন করতে পারে। রয়্যাল সোসাইটির একটি জার্নাল এমনই দাবি করা হয়েছে। পৃথিবীর আবহাওয়া দ্রুত পরিবর্তনের ফলে ভাইরাস তাদের চরিত্রও খুব দ্রুত পরিবর্তন করতে পারবে। ফলে খুব সহজেই ভাইরাসগুলি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়বে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেই সব ভাইরাসকে কাবু করা কঠিন হবে।২০২১ সালে তিব্বতের একটি হিমবাহের গলে যাওয়া জল ও মাটি পরীক্ষা করে ৩৩ রকমের ভাইরাসের হদিশ পান বিজ্ঞানীরা। অনুমান করা হচ্ছে, সেগুলি প্রায় ১৫ হাজার বছর পুরনো। আরও চমকে দেওয়ার মতো বিষয় হল যে, ৩৩ টির মধ্যে ২৮ টি ভাইরাস নতুন। অর্থাৎ, তার সংক্রমণের প্রকৃতি বা নিরাময়  নিয়ে মানুষ প্রায় কিছুই জানে না। এখন এর থেকে মুক্তির ওপায় নিয়েও কিছু বলতে পারছেন না বিশেষজ্ঞরা।

Mailing List