পুরুলিয়ায় কেন বামেরা শূন্য, ব্যাখ্যা দিলেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক, কংগ্রেস অবশ্য কিছুটা অক্সিজেন পেয়েছে

পুরুলিয়ায় কেন বামেরা শূন্য, ব্যাখ্যা দিলেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক, কংগ্রেস অবশ্য কিছুটা অক্সিজেন পেয়েছে
02 Mar 2022, 06:50 PM

পুরুলিয়ায় কেন বামেরা শূন্য, ব্যাখ্যা দিলেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক, কংগ্রেস অবশ্য কিছুটা অক্সিজেন পেয়েছে

 

আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, পুরুলিয়া

 

প্রত্যাশা মতোই পুরুলিয়ার তিন পুরসভা নির্বাচনে নিজেদের দখলে রাখল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। অপর দিকে জেলার পুরুলিয়া ও রঘুনাথপুর পৌরসভায় বিজেপি তিনটি ও দুটি করে আসন পেলেও জেলার ঝালদা পৌরসভাতে বিজেপি খাতা খুলতেই পারে নি।আর বামেরা জেলার তিন পৌরসভার কোথাও একটি আসনেও জয়লাভ করতে না পারায় এবার তাদের শূন্য হাতেই ফিরতে হল।

তবে এবারের পুর নির্বাচনে রঘুনাথপুর পৌরসভাতে কংগ্রেস ও বিজেপি গতবারের থেকে একটি করে বেশি আসন পেয়ে বাড়তি অক্সিজেন পেল।

গতবার রঘুনাথপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ড থেকেই একমাত্র কংগ্রেস প্রার্থী জয়লাভ করেছিল। আর ৫ নম্বর ওয়ার্ড থেকে একমাত্র বিজেপি প্রার্থী জয়লাভ করেছিল। কিন্তু এবারের নির্বাচনে দেখা গেল রঘুনাথপুর পৌরসভার ১৩ টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৯টি আসনে তৃণমূল কংগ্রেস, ২ টি আসনে বিজেপি ও ২ টি আসনে কংগ্রেস প্রার্থীরা জয়লাভ করেছে। পাশাপাশি পৌরসভার অন্যান্য ওয়ার্ড গুলিতেও ফলাফলের নিরিখে কংগ্রেস দ্বিতীয় স্হানে জায়গা করে নিয়েছে। তবে বামেরা রঘুনাথপুর পৌরসভায় খাতা খুলতেই পারেনি।

অন্যদিকে জেলার ২৩ আসন বিশিষ্ট পুরুলিয়া পৌরসভা নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস ১৭টি, বিজেপি ৩টি, কংগ্রেস ১ টি ও নির্দল ২ টি আসনে জয়লাভ করেছে। আর বামেরা কোনও আসন পায় নি।

জেলার অন্যপ্রান্ত 12টি আসন বিশিষ্ট ঝালদা পৌরসভা নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস 05টি ও কংগ্রেস 05টি আসনে জয়লাভ করেছে।আর 02টি আসনে নির্দল প্রার্থীরা জয়লাভ করেছে।তবে এদিনই ফলাফলের পরই ঝালদা পৌরসভার 3নম্বর ওয়ার্ডের নির্দল প্রার্থী শিলা চ্যাটার্জী তৃণমূলে যোগদান করেছেন। অপর নির্দল প্রার্থীও তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করতে চলেছে এমনটাই জানা গিয়েছে।

পুরুলিয়া জেলা কংগ্রেসের সভাপতি নেপাল মাহাত বলেছেন, ঝালদা ও রঘুনাথপুর পৌরসভাতে তাদের দল ভাল ফল করলেও পুরুলিয়া পৌরসভাতে এই ফলাফল তারা আশা করেড়নি। তবে কেন খারাপ ফল হল তার কারণ জানার চেষ্টা করবেন।

অপরদিকে পুরুলিয়া জেলা বিজেপির কনভেনার বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বলেন, রাজ্য সরকার তার নিজের প্রভাব খাটিয়ে ওয়েস্ট বেঙ্গলের যা রীতি সেই একি ট্রডিশন চালিয়ে ভোট করার জন্যই আজ এই রেজাল্ট।

পুরুলিয়া জেলা সিপিএমের জেলা সম্পাদক প্রদীপ রায় বলেছেন, আমাদের সংগঠনের দুর্বলতা ছিল, তার জন্যই এই ফলাফল। কিভাবে এই দুর্বলতা কাটিয়ে তোলা যায়,তা আগামীদিন দলে আলোচ্য বিষয় হবে।

অন্যদিকে পুরুলিয়া জেলা তৃণমূলের সভাপতি সৌমেন বেলথরিয়া বলেছেন, প্রত্যাশা মতোই জয় এসেছে। আগের দুটো নির্বাচনে বিজেপি ভাল ফল করেছিল ঠিকই কিন্তু বিজেপির মিথ্যা প্রতিশ্রুতি, ভাঁউতা বুঝতে পেরে মানুষ তৃণমূলকে সমর্থন করেছে। মূলত সেটাই এই রায়ে প্রতিফলিত হয়েছে।

Mailing List