মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ভূয়ো নিয়োগপত্র উৎকর্ষ বাংলার মঞ্চে, সংস্থার বিরুদ্ধে এফআইআর করলো রাজ্য, ২০৭ জন চাকরিপ্রার্থীকে বিকল্প চাকরিও

মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ভূয়ো নিয়োগপত্র উৎকর্ষ বাংলার মঞ্চে, সংস্থার বিরুদ্ধে এফআইআর করলো রাজ্য, ২০৭ জন চাকরিপ্রার্থীকে বিকল্প চাকরিও
26 Sep 2022, 05:12 PM

মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ভূয়ো নিয়োগপত্র উৎকর্ষ বাংলার মঞ্চে, সংস্থার বিরুদ্ধে এফআইআর করলো রাজ্য, ২০৭ জন চাকরিপ্রার্থীকে বিকল্প চাকরিও

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে উৎকর্ষ বাংলার মঞ্চ থেকে আইটিআই, পলিটেকনিক সহ বিভিন্ন বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ নেওয়া চাকরি প্রার্থীদের ভুয়ো নিয়োগপত্র দেওয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাজ্য সরকার কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে। রাজ্য সরকারের তরফে মধ্যস্থতাকারী সংস্থার বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করা হয়েছে। বঞ্চিত হওয়া মোট ২০৭ জন চাকরিপ্রার্থীকে বিকল্প চাকরির সুযোগ দেওয়া হয়েছে বলে মুখ্য সচিব হরি কৃষ্ণ দ্বীবেদি জানিয়েছেন।

নবান্নে আজ, সোমবার এক সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্য সচিব বলেন, ওই ২০৭ জন প্রার্থীকে রাজ্য সরকারের তরফে ভুয়ো নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে বলে বিভিন্ন মহলে অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু তা ঠিক নয়। রাজ্যের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ছেলেমেয়েদের চাকরির সংস্থান করার জন্য রাজ্য সরকার সিআইআই এর মত বণিক সভার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কাজ শুরু করেছে। বণিক সভা,বিভিন্ন শিল্প সংস্থার সঙ্গে মধ্যস্থতাকারী মারফত যোগাযোগ করে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীদের চাকরি বা শিক্ষানবীসির ব্যবস্থা করে। এখানে রাজ্য সরকারের ভূমিকা শুধুমাত্র শিল্প সংস্থা এবং চাকরিপ্রার্থীদের যোগাযোগের মঞ্চ প্রদান করা। এই ঘটনার ক্ষেত্রে গুরগাঁও ভিত্তিক একটি বেসরকারি মধ্যস্থতাকারী সংস্থার দোষেই এই ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে বলে মুখ্য সচিব দাবি করেছেন। তিনি জানান ওই সংস্থার বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশ এফআইআর দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে। অন্যদিকে ওই প্রার্থীদের ও সিআইআইয়ের মাধ্যমে বিকল্প চাকরির সুযোগ দেওয়া হয়েছে। একেকজন প্রার্থী একাধিক চাকরির সুযোগ পেয়েছেন। মুখ্য সচিব বলেন তারা এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েছেন। এখন থেকে কোন প্রার্থীকে এ ধরনের নিয়োগপত্র দেওয়া হলে তা রাজ্য সরকার এবং বণিক সভা ভালো করে খতিয়ে দেখবে। যাতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করা যায়।

Mailing List