শহীদ চুনারাম মাহাতো ও গোবিন্দরাম মাহাতোর পূর্ণাবয়ব মূর্তি উন্মোচন

শহীদ চুনারাম মাহাতো ও গোবিন্দরাম মাহাতোর পূর্ণাবয়ব  মূর্তি উন্মোচন
30 Sep 2020, 10:45 PM

শহীদ চুনারাম মাহাতো ও গোবিন্দরাম মাহাতোর পূর্ণাবয়ব মূর্তি উন্মোচন

 আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় পুরুলিয়া

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে এবার পুরুলিয়া জেলার মানবাজার মহকুমা এলাকায় উন্মোচিত হল বীর কুড়মি সমাজের শহীদ চুনারাম মাহাতো ও গোবিন্দরাম মাহাতোর পূর্ণাবয়ব মূর্তি। উন্মোচন করেন রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন পর্ষদের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো, পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুজয় ব্যানার্জী ও কুড়মি সমাজের চেয়ারম্যান অজিত মাহাতো।

এদিন এই মূর্তি উন্মোচনের সঙ্গে সঙ্গে মানবাজারে অবস্থিত কুমারী নদীর নাম পরিবর্তিত করে চুনারাম গোবিন্দ সেতু নাম রেখে তার নতুনভাবে সূচনা করেন পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুজয় ব্যানার্জী ও রাজ্য পশ্চিমাঞ্চল দফতরের মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো।

এদিন এবিষয়ে পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি বলেন, 'বহুদিনের চাহিদা ছিল মানবাজারে এই মূর্তির, আজ তা উন্মোচিত হওয়ায় খুশি জেলার কুড়মি সমাজের মানুষজন। এছাড়াও আজ আমরা কুড়মি সমাজের মানুষের চাহিদায় মানবাজার বিধানসভার অন্তর্গত কুমারী নদীর নাম পরিবর্তন করে আজ ওই সেতুর নাম চুনারাম গোবিন্দ সেতু রেখে তার উদ্বোধন করলাম। বীর ওই দুই শহীদদের চুয়াড় বলেছিল ইংরেজরা। আজ তাদের নামে মূর্তি স্থাপন করে আমরা সমাজের এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলাম। আগামী দিনে কুড়মি সমাজের কাছে ওনাদের স্মৃতি আরও পোক্ত হবে এই আশায় রাখি।'

প্রসঙ্গত, মানবাজার থানার অন্তর্গত কুড়দা গ্রামের বাসিন্দা তথা স্বাধীনতা সংগ্রামী শহীদ চুনারাম মাহাতো ও মানবাজার থানার অন্তর্গত নাথুরডি গ্রামের বাসিন্দা তথা শহীদ গোবিন্দ মাহাতো জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর অসহযোগ আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন আর সেই বীর শহীদদের মনে করে এবার তাদের মূর্তি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুজয় ব্যানার্জী এবার সেই পরিকল্পনাই বাস্তবায়িত করলেন তিনি।

এদিনের এই মূর্তি উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী সন্ধ্যারাণী টুডু, পুরুলিয়া জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ হলধর মাহাতো সহ জেলার কুড়মি সমাজের জ্ঞানীগুণী মানুষজন।

Mailing List