স্ত্রীর গলা কেটে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা! চাঞ্চল্য রঘুনাথপুরের বাবুগ্রামে

স্ত্রীর গলা কেটে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা! চাঞ্চল্য রঘুনাথপুরের বাবুগ্রামে
21 Jul 2021, 07:33 PM

স্ত্রীর গলা কেটে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা! চাঞ্চল্য রঘুনাথপুরের বাবুগ্রামে

 

আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, পুরুলিয়া

 

দীর্ঘ সময় ধরে লকডাউন চলায় কর্মসংস্থান বন্ধ হয়ে পড়ার জেরে আর্থিক সংকটে পড়েছিলেন পুরুলিয়া জেলার রঘুনাথপুর থানার অন্তর্গত বাবুগ্রাম গ্রামের বাসিন্দা সুধাংশু কুম্ভকার। দীর্ঘদিন তিনি স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে বীরভূম জেলার তারাপীঠে ছিলেন। সম্প্রতি জন্মভিটা পুরুলিয়ার বাবুগ্রাম গ্রামের বাড়িতে স্ত্রী কল্পনা কুম্ভকারকে নিয়ে সুধাংশু কুম্ভকার ফিরেছেন। আর দুজনকেই বুধবার সকালে রক্তাক্ত অবস্হায় পড়ে থাকতে দেখে রঘুনাথপুর থানার পুলিশকে খবর জানালে রঘুনাথপুর থানার পুলিশ তাদের দুজনকেই উদ্ধার করে রঘুনাথপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে এলে ঐ হাসপাতালের ডাক্তারেরা কল্পনা কুম্ভকারকে মৃত বলে ঘোষণা করেন ও সুধাংশু কুম্ভকারকে সংজ্ঞাহীন আশঙ্কাজনক অবস্হায় রঘুনাথপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, বুধবার ভোরে গ্রামের অদূরে রঘুনাথপুর-সাঁওতালডিহি রাস্তার পাশে একটি পুকুর পাড়ে নিজের স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে খুন করে সুধাংশু। তারপর নিজেও ধারালো অস্ত্র তার পেটে ঢুকিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করে। আর্থিক অনটনের কারণেই এমনটা ঘটেছে বলে অনুমান।

 

ভর্তির কয়েকঘন্টা পর সুধাংশু কুম্ভকারের জ্ঞান ফিরলে তিনি হাসপাতালের বেডে শুয়েই সাংবাদিকদের জানান, বীরভূমের তারাপীঠে দীর্ঘদিন ধরে সে তার স্ত্রীকে নিয়ে রান্নার কাজ করতেন। কিন্তু করোনার জেরে লকডাউন পরিস্থিতিতে তার রান্নার কাজ বন্ধ হয়ে যায়। তিনি বিভিন্ন হোটেল কিংবা কারো বাড়িতে রান্নার কাজ চাইতে গেলে তাকে বলা হয় করোনার ভ্যাকসিন না নেওয়া থাকলে রান্নার কাজ পাওয়া যাবে না। এই অবস্থায় করোনার ভ্যাকসিন নিতে না পারায় কর্মসংস্থান হারিয়ে আর্থিক সংকটের মধ্যে পড়ে সে। তারাপীঠ থেকে পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর থানার অন্তর্গত বাবুগ্রাম গ্রামের বাড়ি ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সেইমতো স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি ফিরেই তারা দুজনেই নিজেদের জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

ads

Mailing List