'ছিল রুমাল,হয়ে গেল বিড়াল', দু'টাকার রেশন পেতে সাধারণ মানুষের কাছে এখন ৯৯টাকার মোবাইল রিচার্জ বাধ্যতামূলক হয়ে গেল

'ছিল রুমাল,হয়ে গেল বিড়াল', দু'টাকার রেশন পেতে সাধারণ মানুষের কাছে এখন ৯৯টাকার মোবাইল রিচার্জ বাধ্যতামূলক হয়ে গেল
04 Dec 2021, 03:15 PM

'ছিল রুমাল,হয়ে গেল বিড়াল', দু'টাকার রেশন পেতে সাধারণ মানুষের কাছে এখন ৯৯টাকার মোবাইল রিচার্জ বাধ্যতামূলক হয়ে গেল

 

সুব্রত গুহ,পূর্ব মেদিনীপুর

 

অনেকটাই  'ছিল রুমাল,হয়ে গেল বিড়ালে'র মতো ঘটনা।  দু'টাকার রেশন পেতে সাধারণ মানুষের কাছে এখন মাসে ৯৯ টাকার মোবাইল রিচার্জ করা বাধ্যতামূলক হয়ে পড়েছে। রেশন কার্ড, আধার কার্ড, ব্যাঙ্কের পাশবই,আই- কার্ড থেকে সমস্ত সরকারী সুযোগ সুবিধা প্রাপ্তি সহ রেলের টিকিট, বিমানের টিকিট, কোভিড টীকাকরণ, স্বাস্থ্য সাথী সহ সমস্ত পরিষেবা প্রদান ইত্যাদি সবক্ষেত্রেই আধার কার্ডের সঙ্গে মোবাইল লিঙ্ক বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

 

স্বাভাবিক ভাবেই মোবাইলের ব্যবহার জনজীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। মোবাইলের অনলাইন পরিষেবা লেখা পড়া সহ জীবনের অত্যাবশকীয় উপাদান হিসাবে দেখা দিয়েছে। সবক্ষেত্রেই মোবাইলে মেসেজ, ওটিপি ইত্যাদি পরিষেবা পাওয়া দৈনন্দিন কাজের রুটিন হয়েছে। কিন্তু মোবাইলের ন্যুনতম রিচার্জের রেট ১০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৯৯ টাকা করা হয়েছে। প্রথমে জিও কোম্পানি ফ্রী সার্ভিস দেওয়ার পর এখন রিচার্জ রেট ক্রমান্বয়ে ১৪৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৯৯ টাকা, তারপর ৪৯৯ টাকা হয়ে ৫৯৯ টাকা করে। এখন ৭২০ টাকা করা হয়েছে।

 

 ইংরেজ আমলে বিনা খরচে চা পান করিয়ে নেশা ধরানোর পরে চায়ের দাম অগ্নিমূল্য করানোর মত এখন মোবাইল কোম্পানি গুলির  মোমাইল চার্জও আকাশচুম্বী। সাধারণ মানুষকে ২ টাকা কেজি করে রেশন কার্ডে  চাল পাওয়ার জন্য মোবাইলে ওটিপি পেতে মাসে মাসে রিচার্জ বাবদ ৯৯ টাকা খরচ করতে হচ্ছে । কেন্দ্রীয় সরকার জিও সহ বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানির স্বার্থ রক্ষায় বেশী আগ্রহী। জনগণের দুর্দশা ভোগ এখন বিধির  লিখন হয়ে দাঁড়িয়েছে।  এরই মধ্যেই  মোবাইলের অস্বাভাবিক চার্জ বৃদ্ধির  প্রতিবাদে সরব হয়েছেন সাধারণ মানুষ। সাধারণ  মানুষের প্রতিবাদে সামিল  হয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের প্রাক্তন সহকারী সভাধিপতি ও তৃণমূল নেতা মামুদ হোসেন রাজ্য সরকারের মুখ্য সচিবের কাছে কেন্দ্রীয় সরকারের মোবাইল রিচার্জের রেট বৃদ্ধি সহ জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে মোবাইল রিচার্জের নতুন রেট চার্জের পুনর্বিন্যাসের দাবি জানিয়েছেন।

ads

Mailing List