আশঙ্কা উড়িয়ে নির্বিঘ্নেই ভোট সম্পন্ন হল পুরুলিয়ার ঝালদায়

আশঙ্কা উড়িয়ে নির্বিঘ্নেই ভোট সম্পন্ন হল পুরুলিয়ার ঝালদায়
26 Jun 2022, 07:00 PM

আশঙ্কা উড়িয়ে নির্বিঘ্নেই ভোট সম্পন্ন হল পুরুলিয়ার ঝালদায়

 

আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, পুরুলিয়া

 

উৎকণ্ঠা থাকলেও শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবেই শেষ হল ঝালদার উপনির্বাচনে। বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত ভোট পড়ল ৮০.৮৬ শতাংশ। রবিবার কাঁটায় কাঁটায় সকাল সাতটায় ঝালদা হাইস্কুলের নির্বাচন কেন্দ্রে শুরু হয় ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া। এখানে দুটি বুথে সকাল থেকে মহিলাদের ভোট দান বেশি সংখ্যায় চোখে পড়ে।

ঝালদা পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে মোট ভোটারের সংখ্যা ১৩৭৯ হলেও সকালের দিকে ভোট দানের হার ছিল কিছুটা কমের দিকেই। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অবশ্য বাড়ে ভোটারের সংখ্যা। দুপুরের দিকে একটু ঢিলে তালে ভোট হলেও বিকেলের দিকে আরও অনেকে এসে নিজেদের মতদান করে যান। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত ভোট পড়ে শতাংশ।

উল্লেখ্য, গত ১৩ মার্চ দুষ্কৃতিদের গুলিতে নিহত হন ঝালদা ২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার তপন কান্দু। কংগ্রেসের এই কাউন্সিলারের হত্যার ঘটনায় ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় ঝালদা জুড়ে। ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবী করে হাইকোর্টের দারস্থ হয় তপন কান্দুর পরিবার। উচ্চ ন্যায়ালয়ের নির্দেশে শুরু হয় সিবিআই তদন্ত। ঘটনায় গ্রেফতার হয় নিহত তপন কান্দুর দাদা এবং ভাইপো সহ মোট পাঁচ জন। কাউন্সিলারের হত্যার ঘটনায় ঝালদা পৌরসভার ২ নং আসনটি রিক্ত হয়ে যায়। এরপর এখানে উপনির্বাচনের নোটিফিকেশন জারি হয়। সেই মতো এদিন ভোটগ্রহণ করা হয়। কংগ্রেসের হয়ে এই আসনে প্রার্থী হন নিহত তপন কান্দুর ভাইপো মিঠুন কান্দু। অন্যদিকে তৃণমূল এবং বিজেপির হয়ে লড়াইয়ের ময়দানে অবতীর্ণ হন জগন্নাথ রজক ও পরেশ চন্দ্র দাস। প্রচারে তিন পক্ষই পরস্পরকে টক্কর দেবার চেষ্টা করলেও নির্বাচনের দিন অবশ্য অসাধারণ সৌজন্য দেখা গেছে তিন জনের মধ্যে। এদিন ঝালদা হাইস্কুলের ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে সকাল থেকেই পরিস্থিতি ছিল একেবারেই শান্ত। ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তার ব্যাবস্থা করা হলেও পুলিশের হস্তক্ষেপের কোন প্রয়োজনই হয়নি। তিন প্রার্থী নিজেদের মধ্যে অনেকটা সময়ই গল্প করে পার করেন। এক সঙ্গে সাধারণ ভোটারদের সহযোগিতাও করেন তারা।

Mailing List