বাংলাদেশে শিশুদের কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি চালু করতে সহায়তা করছে যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাদেশে শিশুদের কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি চালু করতে সহায়তা করছে যুক্তরাষ্ট্র
15 Aug 2022, 10:35 AM

বাংলাদেশে শিশুদের কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি চালু করতে সহায়তা করছে যুক্তরাষ্ট্র

 

 

আনফোল্ড বাংলা ঢাকা ব্যুরো: বাংলাদেশকে শিশুদের টিকা দিতে সাহায্য করল যুক্তরাষ্ট্র। ঢাকায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস যুক্তরাষ্ট্রের অনুদানকৃত ফাইজারের পেডিয়াট্রিক কোভিড-১৯ টিকা ডোজ দিয়ে বাংলাদেশের ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকাদানের জাতীয় প্রচারাভিযান কার্যক্রমের উদ্বোধনীতে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এবং শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে যোগদান করেন। এই উপলক্ষ্যে আয়োজিত বিশেষ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশী শিশুদের প্রথম দলটিকে কোভিড-১৯ টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিসেফের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ শেলডন ইয়েট, বাংলাদেশ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ। সম্প্রতি এই অনুষ্ঠানটি হয়।

 

যুক্তরাষ্ট্র সম্প্রতি শিশুদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা ফাইজারের কোভিড-১৯ টিকার ৩০ লাখেরও বেশি ডোজ বাংলাদেশকে অনুদান দিয়েছে এবং মোট ৪ কোটিরও বেশি টিকা ডোজ অনুদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। শিশুদের কোভিড-১৯ টিকাদানের নতুন এই কর্মসূচিতে যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া সহায়তার মধ্যে ৭.৩ মিলিয়ন ডলার বা ৭৩ কোটিরও বেশি টাকা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এবং এই সহায়তা কোভ্যাক্স থেকে দেয়া অন্যান্য সহায়তার পাশাপাশি দেয়া হবে।

 

“এটি শিশুদের জন্য, মা-বাবার জন্য এবং পুরো দেশের জন্য একটি অসাধারণ পদক্ষেপ। আমরা আশা করি এই টিকাদানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ছোট শিশুরা আরো ভালোভাবে তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারবে। যা তাদেরকে লেখাপড়াকে চালিয়ে যেতে ও নিজেদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে,” বলেছেন রাষ্ট্রদূত হাস।

 

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে কোভিড-১৯ টিকার সাড়ে ৭ কোটিরও বেশি ডোজ অনুদান দিয়েছে; যা এখন পর্যন্ত বাংলাদেশকে বিদেশী রাষ্ট্রগুলোর দেয়া মোট কোভিড-১৯ টিকা ডোজের দুই-তৃতীয়াংশেরও বেশি। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের ৬৪ জেলাব্যাপী ৫১,০০০ জনেরও বেশি স্বাস্থ্যসেবাদানকারী ও অন্যান্য কর্মীদের নিরাপদে টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়েছে এবং ১৮টি ফ্রিজার ভ্যান, ৭৫০টি ফ্রিজার ইউনিট ও ৫ কোটি ৭০ লাখ টিকা ডোজ প্রত্যন্ত এলাকাগুলোতে পৌঁছে দিতে ৮,০০০ ভ্যাকসিন কেরিয়ার অনুদান দিয়েছে এবং সরাসরি ৪ কোটি ৭০ লাখ টিকা দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে কোভিড-১৯ সংশ্লিষ্ট উন্নয়ন ও মানবিক সহায়তা হিসেবে ১৪ কোটি ডলার বা ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকারও বেশি সহযোগিতা করেছে। বিশ্বব্যাপী কোভ্যাক্সের প্রচেষ্টাকে ত্বরান্বিত করতে যুক্তরাষ্ট্র ৪ বিলিয়ন ডলার বা ৪০ হাজার কোটি টাকার সহায়তা দিয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে হিমাঙ্কের নিচে টিকা সংরক্ষণ বা আল্ট্রা কোল্ড চেইন স্টোরেজ ব্যবস্থা, পরিবহন ও কোভিড-১৯ টিকার নিরাপদ ব্যবস্থাপনা। আর এই অনুদান দেয়ার ফলে কোভিড-১৯ টিকা ন্যায়সঙ্গতভাবে বিশ্বব্যাপী পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র বৃহত্তম দাতা দেশের মর্যাদা লাভ করেছে।

Mailing List