দুই দেশ-এক মসজিদ, সম্প্রীতির ও আন্তর্জাতিক বন্ধুত্বের চমৎকার উঠোন

দুই দেশ-এক মসজিদ, সম্প্রীতির ও আন্তর্জাতিক বন্ধুত্বের চমৎকার উঠোন
02 Jan 2021, 08:37 PM

দুই দেশ-এক মসজিদ, সম্প্রীতির আন্তর্জাতিক বন্ধুত্বের চমৎকার উঠোন

আব্রাহাম লিংকন

 

ছোট্ট ও জীর্ন মসজিদ। আন্তর্জাতিক বন্ধুত্বের চমৎকার উঠোন। নির্জনতায় হলেও গুরুত্ব অনেক।

আজ গিয়েছিলাম ভূরুঙ্গামারী উপজেলার দক্ষিণ বাঁশজানি গ্রামে সেই মসজিদ দেখতে। যার ভারতীয় অবস্থান দিনহাটা থানার দিঘলটারী। সেখানে গেলে বোঝার উপায় নেই কোন ঘরটি ভারত আর কোনটা বাংলাদেশের। এখানে দুই দেশের মানুষ জন নামাজ পড়েন। এ ক্ষেত্রে দু-দেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বাধা হয়নি। এ এক চমৎকার সম্প্রীতি। উদহারণযোগ্য বন্ধুত্বের নিদর্শন। উভয় দেশের নাগরিকরা সেখানে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। কেউ যেনো সেখানে আইন ভঙ্গ না করেন সেদিকে উভয় দেশের স্থানীয়রা যথেষ্ট সচেতন ও সতর্ক।

এই মসজিদটি উভয় দেশের জন্য একটি ধর্মীয় ও পর্যটনের কেন্দ্র হিসেবে স্বীকৃতি পেতে পারে। এ জন্য চাই সেখানে প্রসারিত পাকা সড়ক। স্থানীয় ও জেলা প্রশাসন মসজিদটিকে দৃষ্টিনন্দন করতে পারেন। উভয় দেশ একত্রেও এটি যৌথভাবে নির্মাণ করে আন্তর্জাতিক নজির সৃষ্টি করতে পারেন। তবে যাতে নিয়মের নামে সৌহার্দ্যের মসজিদটিতে মুসল্লীরা বিপদগ্রস্ত না হন সেটি যেমন নজরে রাখতে হবে তেমনই সুযোগ সন্ধানী দুষ্টচক্র যাতে ধর্মীয় সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অপকর্মে লিপ্ত হতে না পারে, সেদিকেও নজর রাখতে হবে।

 

লেখক: বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম জেলার স্বনামধন্য আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ।

Mailing List