৭৪তম বর্ষে বড়িশা ক্লাব সর্বজনীন দুর্গোত্‍সবের এবছরের থিম 'চির পুরাতন নিত্য নূতন'

৭৪তম বর্ষে বড়িশা ক্লাব সর্বজনীন দুর্গোত্‍সবের এবছরের থিম 'চির পুরাতন নিত্য নূতন'
26 Sep 2022, 06:09 PM

৭৪তম বর্ষে বড়িশা ক্লাব সর্বজনীন দুর্গোত্‍সবের এবছরের থিম 'চির পুরাতন নিত্য নূতন'

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: দুর্গাপুজো মানেই থিম যুদ্ধের দামামা। কোনও মণ্ডপ থিম প্রতিযোতিতায় সেরা উপহার নিজের আয়ত্তে করতে থিমে অভিনবত্ব আনে। আর দর্শনার্থীরাও মণ্ডপ সজ্জা থেকে প্রতিমা সরবকিছুতেই অভিনবত্ব দেখতে চায়। দর্শনার্থীদের এই চাহিদা মেটাতে তৈরি 'বড়িশা সর্বজনীনের দুর্গোত্‍সব'।

এবারের থিম 'চির পুরাতন নিত্য নূতন'। 'বড়িশা সর্বজনীন দুর্গোত্‍সব' এই বছর ৭৪ তম বর্ষে পদার্পণ করেছে। এবার তাদের থিম 'চির পুরাতন নিত্য নূতন'। রূপায়ণে রণ বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রতিমা নির্মাণে উত্‍পল ঘোষ, আবহে অভিনন্দন বন্দ্যোপাধ্যায়।

'চির পুরাতন নিত্য নূতন'- থিমের নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে পুরাতনকে তুলে ধরা হয়েছে নতুনের আদলে। সময় যত এগিয়েছে মন্দির ও দেবালয়ের ক্রমাগত বিবর্তন স্বচক্ষে দেখেছেন মানুষ। প্রাচীন জনপদ অর্থাত্‍ বড়িশার দ্বাদশ মন্দির প্রাঙ্গণে দেখা যায় সিংহ দালান, শিবমন্দির, দোল মঞ্চ তথা শৈব, শাক্ত ও বৈষ্ণব ধারার অভূতপূর্ব ত্রিবেনীসঙ্গম। সিংহ দালানে মূর্তি-সমষ্টি প্রতিষ্ঠার ইতিহাস আজও অধরা। মনে করা হয়, যমের হাত থেকে ভক্তকূলকে রক্ষা করার জন্য পাথর নির্মিত মহিষাসুরমর্দিনী অষ্টাদশভূজা দেবী মহালক্ষ্মীর অবস্থান দক্ষিণমুখী। দেবীর পাশাপাশি একসঙ্গে পূজিত হন রুদ্র-গৌরী, ব্রহ্মা-সরস্বতী, বিষ্ণু-লক্ষ্মী, চতুর্ভূজা মহাকালী, চতুর্ভূজা মহালক্ষ্মী, চতুর্ভূজা মহাসরস্বতী, দশাননা দশভূজা মহাকালী এবং অষ্টভূজা মহাসরস্বতী। অতি বিরল ও সুপ্রাচীন এই ধারার উপাসনা এবং দালান রীতির টেরাকোটা নির্মিত মন্দিরশৈলী এই জায়গায় ঐতিহ্য বহন করে।

ঐতিহ্য বজায় রাখতে আজও পুজোর সময় মন্দির প্রাঙ্গণে সমবেত হন পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তের ভিন্ন ভিন্ন ঘরানার লোকশিল্পীরা। আসর বসে তরজা গান, কবির লড়াই, আউল-বাউল সম্প্রদায়ের। সিংহ দালান ঘিরে পুজোর উপকরণ নিয়ে দোকান সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। এখানেই শেষ নয়, পুণ্যার্থীদের রাত্রিবাসের জন্য সারাবছর খোলা থাকে যাত্রীনিবাস এবং ভাতের হোটেল। ভোগ বিতরণের ব্যবস্থাও থাকে। পুরতন করি বরগার ঠাকুর দালান, একচালা মূর্তি দেখতে গেলে ঘুরে আসতেই হবে বেহালা বড়িশার সর্বজনীন দুর্গোত্‍সবে। পুরাতন মন্দির প্রাঙ্গনকে নতুন আদলে তুলে ধরেছেন পুজো উদ্যোক্তারা।

Mailing List