মহারণের প্রহর গোনা শুরু ইডেনে, কড়া নজর মহারাজের

মহারণের প্রহর গোনা শুরু ইডেনে, কড়া নজর মহারাজের
23 May 2022, 10:15 PM

মহারণের প্রহর গোনা শুরু ইডেনে, কড়া নজর মহারাজের

 

আনফোল্ড বাংলা স্পোর্টস ডেস্ক: অপেক্ষা আর মাত্র কয়েক ঘন্টা। তার পরই ইডেনে আইপিএলে প্লে অফের মহারন।

সোমবার সকালে ইডেনে এসেছিলেন সৌরভ। প্রায় এক ঘণ্টামতো ছিলেন। মাঠে নেমে আশেপাশে ঘুরে দেখলেন। প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিলেন। দুপুর এবং সন্ধে দু'বেলাই তিনি প্রায় দেড় ঘণ্টা ছিলেন। মাঠ ঘুরে দেখা ছাড়াও এর মাঝে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

আইপিএলের দু'টি প্লে-অফ ম্যাচের আয়োজন সর্বাঙ্গসুন্দর করতে সব রকম চেষ্টা করছে সিএবি। উইকেট বা আউট ফিল্ডের যত্ন, পরিচর্যায় যেমন কোনও খামতি রাখা হচ্ছে না, তেমনই ইডেনের সাজসজ্জাতেও সমান গুরুত্ব দিয়েছেন সিএবি কর্তারা।

আইপিএলের আবহের সঙ্গে মানানসই করেই সাজিয়ে তোলা হয়েছে ইডেনকে। সিএবি কর্তাদের পরিকল্পনায় রঙে, আলোয় ভরে উঠেছে ইডেন। স্টেডিয়ামের ভিতর হোক বা বাইরে— সর্বত্রই সমান গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

সিএবি কর্তাদের আশা, তাঁদের আয়োজন খুশি করবে সকলকে। কিউরেটর সুজন মুখোপাধ্যায়, আশিষ ভৌমিকের সঙ্গে পিচ দেখতে গেলেন বোর্ডের সিইও হেমাঙ্গ আমিন। কিন্তু ওই টুকু সময়ই। তারপর আবার পিচ সাদা কভারের তলায়। তিনটে টিম কলকাতায় ঢুকে পড়ার পরও মাঠ মুখো হতে পারছে না। প্র্যাকটিসের কোনওরকম বালাই নেই। এদিন যেমন সকালে গুজরাত টাইটান্স আর রাজস্থান রয়্যালসের অনুশীলনের কথা ছিল যাদবপুর ক্যাম্পাসের মাঠে। কিন্তু বৃষ্টির জন্য সব বাতিল। গৌতম গম্ভীরের দল লখনউ সুপার জায়ান্টস তো আবার আরও একদিন আগে এসেছে। কিন্তু তারও মাঠে নামতে পারেনি।

 

আইপিএল ফাইনালের সবচেয়ে দামি টিকিট ৬৫ হাজার টাকা এবং সবচেয়ে সস্তা টিকিট ৮০০ টাকা। করোনার কারণে মানুষ ম্যাচের জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করছিল। এখন যেহেতু বিধিনিষেধ পুরোপুরি উঠে গেছে, ফাইনালে বিপুল সংখ্যক দর্শক মাঠে থাকবে। ২ বছরের মধ্যে এই প্রথম স্টেডিয়ামগুলো পূর্ণ ক্ষমতায় ভরে যাবে। গত ২ মরসুমে, ম্যাচগুলি হয় দর্শকহীন অবস্থায়। চলতি লিগে করোনা প্রোটোকলের কারণে, শুধুমাত্র কম দর্শকদের স্টেডিয়ামে আসতে দেওয়া হয়েছিল। লিগ রাউন্ডের সময়, প্রথম ২৫ শতাংশ সমর্থককে মাঠে আসতে সুযোগ দেওয়া হয়। পরে তা বাড়িয়ে ৫০ শতাংশ করা হয়।

ইডেনে আইপিএল প্লে-অফের জন্য বিশেষ মেট্রো। ২৪ ও ২৫ মে দু দিনই রাত ১২ টায় এসপ্ল্যানেড থেকে জোড়া ট্রেন। একটি ট্রেন এসপ্ল্যানেড থেকে কবি সুভাষ, অপরটি এসপ্ল্যানেড থেকে দক্ষিনেশ্বর। ইডেন ফেরত ক্রিকেট প্রেমীদের কথা ভেবে এই পরিকল্পনা কলকাতা মেট্রোর।

ads

Mailing List