খড়্গপুর শহরকে সিসিটিভি ক্যামেরা দিয়ে মুড়ে ফেলার নির্দেশ   মুখ্যমন্ত্রীর

খড়্গপুর শহরকে সিসিটিভি ক্যামেরা দিয়ে মুড়ে ফেলার নির্দেশ   মুখ্যমন্ত্রীর
17 May 2022, 09:16 PM

খড়্গপুর শহরকে সিসিটিভি ক্যামেরা দিয়ে মুড়ে ফেলার নির্দেশ   মুখ্যমন্ত্রীর

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন : খড়্গপুর শহরে ইদানিং বেড়েছে চুরি ছিনতাই। সেই সঙ্গে বেড়েছে গুলি চালানো,  নানা রকম অপরাধমূলক কাজও। এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশ্নের মুখে পড়তে হল  পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পুলিশকে।  

এদিন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদ চত্বরে শহীদ  প্রদ্যোৎ স্মৃতি সদনে জেলার প্রশাসনিক বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই খড়্গপুর এলাকায় কেন চুরি ছিনতাই বেড়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই সঙ্গে জানাতে চান পুলিশ কী করছে তা নিয়েও।  খড়্গপুরে কতগুলি সিসিটিভি ক্যামেরা আছে তাও জানতে চান। 

তারপরেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “খড়্গপুর খুব সেন্সিটিভ শহর। সেখানে আরও সিসিটিভি ক্যামেরা লাগান। নাকা চেকিং করুন। প্রয়োজনে জিআরপিকে সঙ্গে নিয়ে রেলেও পরিদর্শন, চেকিং করুন।”

উল্লেখ্য গত কয়েক দিনে খড়্গপুরে চুরি, ছিনতাই হয়েছে। এমনকি দিনের বেলাতেও ছিনতাই লুট হয়েছে। দুষ্কৃতীরা এসে গুলি চালিয়ে, টাকা লুট করে পালিয়ে যায়।

এদিন প্রথমেই জেলার পুলিশ সুপার দীনেশ কুমারের কাছে এই নিয়ে জানতে চান মুখ্যমন্ত্রী। পুলিশ সুপার তাঁকে জানান, খড়্গপুরের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে, ছিনতাইয়ের ঘটনায় কয়েকজনকে গ্রেফতার করে তাঁদের কাছে থেকে জিনিস উদ্ধার করাও হয়েছে।

পরে এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন করেন খড়্গপুরের আইসিকে। তিনি বলেন, “ইদানিং খড়্গপুরে চুরি ছিনতাই বেড়েছে।“ আইসি তাঁকে জানান যে কিছু কিছু ক্ষেত্রে অপরাধীদের ‘ডিকেক্ট’ করা হয়েছে, জিনিসপত্র উদ্ধার করাও হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী জানতে চান যে সেখানে কতগুলি সিসিটিভি ক্যামেরা  আছে ও সেগুলি কাজ করে কী না। আই সি জানান, সেখানে ১০৪টি সিসিটিভি ক্যামেরা  আছে ও সবগুলিই কাজ করে। খড়্গপুরে আরও বেশি করে টহল দেওয়ার পাশাপাশি আরও সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানোর নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “এখানে পাশেই ঝাড়খন্ড, রাজ্যের সীমানা। সেখান থেকে বন্দুক আসছে, পালং শাকের নিচে কেউ বন্দুক নিয়ে এলে কেউ জানতেও পারবে না।”একই সঙ্গে তাঁর মতে, রেলের জিআরপি থাকলেও তাঁরা ঠিক মত ট্রেনে চেকিং করে না। তাই খড়্গপুর থানার আইসিকে, রেলের পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে খড়্গপুর স্টেশনে চেকিং করার নির্দেশ দেন।

জেলায় , বিশেষ করে সীমান্ত এলাকাতেও নাকা চেকিং বৃদ্ধি করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দেন জেলার পুলিশ সুপারকে।    

ads

Mailing List