মালদায় বিক্ষুব্ধ  নেতার মান ভাঙাতে ময়দানে নামতে হলো বিজেপির জেলা নেতৃত্বকে

মালদায় বিক্ষুব্ধ  নেতার মান ভাঙাতে ময়দানে নামতে হলো বিজেপির জেলা নেতৃত্বকে
07 Apr 2021, 08:55 PM

মালদাবিক্ষুব্ধ  নেতার মান ভাঙাতে ময়দানে নামতে হলো বিজেপির জেলা নেতৃত্বকে

 

 

 

মধুমিতা দে, মালদা

 

দলের প্রার্থীর প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে মনোনয়ন জমা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছিলেন পুরাতন মালদা পঞ্চায়েত সমিতির বিজেপির বিরোধী গোষ্ঠির দলনেতা নিতাই মন্ডল। বিক্ষুব্ধ সেই নেতার মান ভাঙাতে ময়দানে নামতে হলো বিজেপির জেলা নেতৃত্বকে।

 

 বুধবার দুপুরে মালদা বিধানসভা কেন্দ্রের সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের শিব মন্দির এলাকা থেকে বিশাল মিছিল করে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসার উদ্যোগ নেন বিজেপির বিক্ষুব্ধ নেতা নিতাই মন্ডল ।  রীতিমতো ঢাকঢোল বাজিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার জন্য মিছিল করে আসার প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছিলেন নিতাইবাবু। কিন্তু নিতাইবাবুর মান ভাঙাতেই অবশেষে বিজেপির জেলার নেতানেত্রীদের হস্তক্ষেপ গ্রহণ করতে হয়। এমনকি বিক্ষুব্ধ বিজেপি নেতার স্ত্রী রুমা মন্ডল কেও এব্যাপারে বোঝানো হয়। এনিয়ে দলীয় কর্মী সমর্থকদের মধ্যে তুলকালাম বেঁধে যায়। রীতিমতো উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে সাহাপুরের শিব মন্দির এলাকায়। দীর্ঘক্ষণ আলোচনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

 

উল্লেখ্য , মালদা বিধানসভা কেন্দ্রের এবারে বিজেপি প্রার্থী হয়েছেন গোপাল চন্দ্র সাহা। আর এই প্রার্থীকে ঘিরে ওই বিধানসভা কেন্দ্রের একাংশ নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়েছে। বিজেপির ওই প্রার্থীকে বদল করার প্রতিবাদ জানিয়ে আন্দোলন শুরু করেন দলের ওপর আরেক নেতা নিতাই মন্ডল। তারপরই বিজেপির প্রার্থীর বিরুদ্ধে নিজেই নির্দল প্রার্থী হিসাবে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেন নিতাই মন্ডল। সেই মতো এদিন নির্দল প্রার্থী হিসাবে মিছিল করে মনোনয়নপত্র পেশ করতে আসার উদ্যোগী হয়েছিলেন নিতাই মন্ডল। কিন্তু বিজেপির দলের জেলার শীর্ষ নেতানেত্রীদের হস্তক্ষেপ এবং দীর্ঘ আলোচনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

 

যদিও এদিন এ প্রসঙ্গে বিক্ষুব্ধ বিজেপি নেতা নিতাই মন্ডল বলেন, যার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে  তাকে প্রার্থী করেছে দল। মালদা বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী গোপাল চন্দ্র সাহাকে মেনে নিতে চাইছেন না কর্মী-সমর্থকরা।  অধিকাংশই কর্মী-সমর্থকেরা আমাকে প্রার্থী হিসাবে চাইছিলেন। যেহেতু আমি বিজেপি দলের টিকিট পাই নি। তাই নির্দল প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন জমা দিতে যাচ্ছিলাম। কিন্তু দলের জেলার শীর্ষ নেতৃত্ব আমার সাথে কথা বলেছে। পাশাপাশি আমি কর্মী-সমর্থকদের কথা মতই চলবো। সকলের দাবি মেনেই আপাতত মনোনয়নপত্র জমা দিতে যই নি। বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল বলেন , প্রার্থী ঠিক করে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব । কাজেই এব্যাপারে আমার কিছু বলার নেই। তবে নিতাইবাবুকে নিয়ে যে সমস্যা হয়েছিল, তা মিটে গিয়েছে। উনি মনোনয়ন জমা দেন নি। পাশাপাশি মালদা বিধানসভা কেন্দ্রে সংযুক্ত মোর্চা এবং শাসক দলকে পরাস্ত করতে এখন বিজেপিকে চাইছে সাধারন মানুষ । তাই নিতাইবাবু দলের হয়ে কাজ করবেন।

Mailing List