এত খাঁই পূর্ত দফতরের ! বীরসিংহ গ্রামে তোরণ করার দর শুনেই চমকে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী

এত খাঁই পূর্ত দফতরের ! বীরসিংহ গ্রামে তোরণ করার দর শুনেই চমকে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী
17 May 2022, 01:44 PM

এত খাঁই পূর্ত দফতরের ! বীরসিংহ গ্রামে তোরণ করার দর শুনেই চমকে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন :  বিদ্যাসাগরের জন্মভূমি বীরসিংহ গ্রামে দুটি তোরণ ও অডিটরিয়াম করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই গ্রামে এসেই সেগুলি করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই কাজ এখনও হয় নি। কেন হয় নি সেই কারণ জানতে চান তিনি। মেদিনীপুরে প্রশাসনিক বৈঠক করতে এসে এদিন তিনি জানান,  জেলায় অন্তত ১৫টি ঘোষিত প্রকল্পের কাজ শুরু হয় নি। এই তালিকায় আছে  ওই তোরণ ও  অডিটোরিয়াম। কেন ওই কাজ হয় নি তার কারণ শুনেই চমকে যান মুখ্যমন্ত্রী।

তাঁকে জেলাশাসক রশ্মি কমল জানান, এই কাজ করতে লাগবে ৩০ থেকে ৪০ কোটি টাকা। এই টাকা লাগবে বলে জানিয়েছে পূর্ত দফতর। এত টাকা শুনেই ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “ আমি তো সেখানে বর্ণপরিচয় গেট করতে বলেছিলাম। সেই কাজ এখনও  হয় নি।  সামান্য এই কাজ করতে এত টাকা লাগে? দুটি তোরণ ও অডিটোরিয়াম করতে এত টাকা লাগে? ২ কোটি, ২ কোটি আরও ২ কোটি, মিলিয়ে ৬ কোটি টাকা লাগে। ৭-৮ কোটি টাকাতেই এই কাজ করা যায়। এখন তো অনেক হালকা জিনিস দিয়েই ভালো জিনিস করে দেওয়া যায়। কে এই ডিপিআর করেছে? আমাকে দেখিও। পিডাবলুডির এত খাঁই? ”   সঙ্গে তিনি বলেন, “ অন্য কাউকে এই কাজ করার দায়িত্ব দাও।”

এদিন তিনি জানান যে কেশিয়াড়ি, গড়বেতা, কেশপুর এলাকা সহ অনেক এলাকাতেই ১৫টি ঘোষিত প্রকল্পের কাজ শুরু হয় নি। এই নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, তিনি নিজেই মুখ্যমন্ত্রীর দফতর থেকে কাজের সমীক্ষা করে দেখছেন। তিনি বলেন, “ অনেকেই আবার মিথ্যা কথা বলে। দিদি বলে দিয়েছে বলে দেয়। আমি যেটা বলি সেটাই করি। কোনও কাজ ফেলে রাখা যাবে না। কাজ হয়েছে বলে আমাকে দিয়ে উদ্বোধন করিয়ে নিলে চলবে না।”

গড়বেতা এলাকার , অনেক কাজ হয় নি। এই নিয়ে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, “ কেন ওই এলাকা এত পিছিয়ে? কেন এই কাজ করা হয় নি?”

ads

Mailing List