রেহান কৌশিকের দুটি কবিতা অবিচ্ছেদ্য এবং বারান্দা

রেহান কৌশিকের দুটি কবিতা অবিচ্ছেদ্য এবং বারান্দা
07 Aug 2022, 11:20 AM

রেহান কৌশিকের দুটি কবিতা অবিচ্ছেদ্য এবং বারান্দা

রেহান কৌশিক

 

অবিচ্ছেদ্য

 

এমন তো নয় বিভ্রমে খুব শিকড় ছিঁড়ে গেছে

দিয়েছে ডুব অন্ধকারে পার-হওয়া সব কথা!

নির্জনতার ফাঁক-ফোকরে স্বমহিমায় ওড়ে

সে-সব দিনের গল্প এবং রঙিন নীরবতা...

 

এমন তো নয় উদ্বাস্তু এ বুকের ভিতর কিছু

থাকবে না আর জায়গা কোনও বসত বাঁধার মতো

বরং এখন অনেক স্বাধীন বাহিরে-অন্তরে

বৃষ্টি-রোদে বাউণ্ডুলে ভিজি অসংযত!

 

একলা মানে একাকী নয়, একার ভিড়ে তুমি

আসছ-যাচ্ছ ঘড়ির কাঁটা উল্টে দিয়ে খুব,

অনিয়মে এমন বাঁচা খারাপ কিছু নয়

নিয়ম মেনে ক'জন পারে স্বপ্নে দিতে ডুব?

 

মনে-রাখা ও না-রাখার স্তব্ধ-নিশান তুলে

ভাসছে আজও যৌথ-সময় স্মৃতির মাস্তুলে!

.............

 

বারান্দা

 

 

মেঘের মতো মেঘ আসে না আর

বারান্দাতে শুকনো পায়ের ছাপ।

 

যা-চলে যায় নিরুদ্দেশের দিকে

চায় কি ছুঁতে নতুন মনখারাপ?

 

ভারচ্যুয়ালি কত মেঘই ভাসে

তাদের বুকে জলের আভাস কই?

 

মেঘের ভিতর সকল-ডুবতে-চাওয়া

সে তো কেবল ভেজার জন্যই...

 

ভাঙা এবং গড়ার ভিতর দিয়ে

সংগত নয় গড়ার দিকে যাওয়া?

 

সেলফি যত রঙিন দিনে ডাকে

যৌথ থাকায় পালটে গেছে হাওয়া।

 

ভাঙার মাঝে অভিমানের মুখ

আসলে তা কাছে ফেরার টান---

 

কেউ কি এখন এ-সুখ খোঁজে আর

এই-চেনাতে হারায় অফুরান?

 

মেসেজ-বক্সে কথার ফাঁকে-ফাঁকে

ব্লকলিস্টেও দৃষ্টি রাখে চোখ!

 

সব ভেঙে যায় পলক ফেলার আগে

আড়াইদিনে ফুরিয়ে যায় শোক।

 

গ্রিলের ফাঁকে সময় পাকায় জট

বিগত সব সরলতার গল্প।

 

বুনোঘাসের অবুঝ আঙুলগুলো

জংধরা এই সময়কে ছোঁয় অল্প।

 

সকাল যেন অচেনা-ডাকনাম

দুপুরগুলো বাতিল বুড়োঘোড়া।

 

সন্ধেরা সব হারমোনিয়াম রিড

সুরের দেহে ছায়া মেশায় ওরা।

 

বারান্দাটা একলা হতে হতে

যাচ্ছে ভুলে জীবন ছিল তার।

 

এখন শুধু নগ্ন সিল্যুয়েটে

ব্রিগেড যেন শূন্য জনতার।

 

কার বুকে নেই ছন্ন-বাসার কথা?

কার বুকে নেই এমন নীরবতা?

 

কার বুকে নেই দগ্ধ-আয়ুর তারা?

কার বুকে নেই এমন বারান্দারা?

................

Mailing List