নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণ গৃহশিক্ষকের, হাতেনাতে ধরা পড়তেই বেধড়ক মার রায়গঞ্জে

নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণ গৃহশিক্ষকের, হাতেনাতে ধরা পড়তেই বেধড়ক মার রায়গঞ্জে
02 Jul 2022, 11:20 AM

নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণ গৃহশিক্ষকের, হাতেনাতে ধরা পড়তেই বেধড়ক মার রায়গঞ্জে

 

তন্ময় চক্রবর্তী, রায়গঞ্জ

 

ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে। আর তা নিয়ে ধুন্ধুমার হল উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের শেঠকলোনীর ফুলতলা এলাকায়। বিষয়টি জানাজানি হতেই ক্ষুব্ধ জনতা ওই গৃহশিক্ষকের বাড়িতে হামলা চালায়। ব্যাপক মারধর করা হয় ওই গৃহশিক্ষককে।

 

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, শিক্ষক ও ছাত্রী – দু’জনেরই বাড়ি একই গ্রামে। নাবালিকা পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। প্রায় তিন বছর ধরে স্থানীয় বাসিন্দা রঘুনাথ রায় নামে একজনের কাছে প্রাইভেট টিউশন পড়ে। শুক্রবার রথের মেলা ছিল। সেদিনও পড়তে যায়। নাবালিকার বাবা রথের মেলায় যাওয়ার আগে একটি কাজের ব্যাপারে মেয়েকে কিছু বলার জন্য গৃহশিক্ষকের বাড়িতে যান। অভিযোগ, বাবা দরজা খুলতেই দেখে যে নাবালিকা ও শিক্ষক দু’জনেই নগ্ন অবস্থায় শুয়ে রয়েছে। তা দেখেই তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে‌ন। বিষয়টি মুহুর্তে ছড়িয়ে পড়ে।

ওই সময় দল বেঁধে পাড়া প্রতিবেশীরা হাজির হন। ক্ষিপ্ত হয়ে গৃহশিক্ষকের বাড়িতে হামলা চালান। ভয়ে গৃহশিক্ষক পাশের একটি বাড়িতে লুকিয়ে আশ্রয় নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু গ্রামবাসীদের তল্লাশিতে ধরাও পড়ে যায়। তারপর বেধড়ক মারধর চলতে থাকে। খবর পেয়ে এলাকায় হাজির হয় পুলিশ। পুলিশ গৃহশিক্ষককে উদ্ধার করে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

নাবালিকার বাবা জানান, মেয়েকে ভয় দেখিয়ে এভাবে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেছে। আমি এভাবে না গেলে হয়তো দেখতেই পেতাম না। আমি চাই এমন শিক্ষকের ফাঁসি হোক। অভিযুক্ত গৃহশিক্ষকের বাবা রতন রায় জানান, আমি এসবের কিছুই জানি না। এই তো শুনছি। যদি আমার ছেলে অপরাধ করে থাকে তাহলে নিশ্চয় শাস্তি হবে।  

Mailing List