ঘুরে দেখা  টলিউড দ্য ইন্ডাস্ট্রির প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়

ঘুরে দেখা  টলিউড দ্য ইন্ডাস্ট্রির প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়
07 Apr 2021, 09:20 PM

ঘুরে দেখা  টলিউড দ্য ইন্ডাস্ট্রির প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: শরীর চর্চার ব্যাপারে বরাবরই সচেতন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। কাজের ফাঁকে কিছুক্ষণের জন্য সময় পেলেই জিমে গিয়ে শরীরচর্চা করতে ভোলেননা তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ আক্টিভ সকলের প্রিয় বুম্বাদা। মাঝে মধ্যে তিনি নানান স্টাইলে ফটোশুট করে ভক্তদের নজর কাড়েন।

 

১৯৬৯ সালে মাত্র পাঁচ বছর বয়সে ছোট্টজিজ্ঞাসা ছবিতে বাবা বিশ্বজিতের সঙ্গে অভিনয় করে রূপালি পর্দায় প্রবেশ করেছিলেন প্রসেনজিৎ। পরবর্তী কালে ১৯৮৩ সালে ‘দুটি পাতা’ ছবিতে  অভিনয় করে নায়ক হিসেবে তাঁর জার্নি শুরু হয়। সুপারডুপার হিট হয়েছিল ‘দুটি পাতা' ছবিটি। তখন প্রসেনজিৎ এর বয়স ছিল মাত্র ১৯। এরপর ‘অমর সঙ্গী, ‘আপন আমার আপন’, ‘কথা দিলাম ‘-এর মতো ছবিগুলো প্রসেনজিৎকে আরও শক্ত অবস্থানে পৌঁছে দেয়। ‘অমর সঙ্গী’ ছবিটি ছিল তার কেরিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট। এরপর তাঁকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ৩২ বছরের অভিনীত জীবনে প্রসেনজিৎ ৫০ জনেরও বেশি অভিনেত্রীর বিপরীতে স্ক্রীন শেয়ার করেছেন প্রসেনজিৎ।

 

 

শুধু টলিউডে নয়,বুম্বাদার বিচরণ বলিউডেও।  ১৯৯০ সালে হিন্দি ছবি ‘আঁধিয়া’য় প্রথম অভিনয় করেন। এরপর ‘মিত মেরে মন কে’,  ‘বীরতা’  ছবিতে অভিনয় করেন।  কিন্তু বলিউডে প্রসেনজিতের পায়ের নিচের জমি শক্ত না হওয়ায়  খুব বেশি আর তাঁকে দেখা যায়নি হিন্দি ছবিতে। ২০ বছর পর  দিবাকর ব্যানার্জির ‘সাংহাই’ ছবিতে একজন রাজনীতিবিদের ভূমিকায় ছোট একটি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে ফের প্রত্যাবর্তন করেছিলেন অভিনেতা।

 

 

টলিউডের গতানুগতিক অ্যাকশন, রোমান্টিক, কমেডি ছবিতে নিজেকে সীমাবদ্ধ না রেখে, ২০০৩ সালে ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘চোখের বালি ছবিতে অভিনয় করে অন্যধারার ছবিতে এক্সপেরিমেন্ট করেন তিনি। এরপর  ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘দোসর’ ছবিতে একজন অবিশ্বস্ত স্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করেন প্রসেনজিৎ। ওই ছবিটি তাঁকে জাতীয় পুরস্কার এনে দেয়। এর পর থেকে বাণিজ্যিক ধারার ছবির পাশাপাশি অন্যধারার ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজের দক্ষতা, যোগ্যতা, অভিজ্ঞতার প্রমাণ রেখেছেন তিনি। ‘মনের মানুষ, ‘অটোগ্রাফ, ‘চলো পাল্টাই,  ‘২২শে শ্রাবণ’, ‘নৌকাডুবি’, মিশর রহস্য’, ‘জাতিস্মর’ -এর মতো ছবিতেও অভিনয় করে দর্শকদের মনে দাগ কেটেছেন, টলিউড দ্য ইন্ডাস্ট্রির প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

Mailing List