নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর তেরঙ্গা যাত্রা আটকালো পুলিশ, দু’পক্ষের মধ্যে তীব্র বাকযুদ্ধ

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর তেরঙ্গা যাত্রা আটকালো পুলিশ, দু’পক্ষের মধ্যে তীব্র বাকযুদ্ধ
12 Aug 2022, 06:45 PM

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর তেরঙ্গা যাত্রা আটকালো পুলিশ, দু’পক্ষের মধ্যে তীব্র বাকযুদ্ধ

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর তেরঙ্গা যাত্রা আটকে দিল পুলিশ। তা নিয়ে শুরু হল তীব্র বিতর্ক। কেন পুলিশ আটকাবে? এই প্রশ্ন করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে পুলিশের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জিও জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। যদিও পুলিশের দাবি, অনুমতি ছাড়াই বাইক র‍্যালি করছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তাই সেই র‍্যালি আটকানো হয়।

 

স্বাধীনতার পঁচাত্তর বর্ষ উদাপন চলছে দেশে। আজাদি কা অমৃত মহোৎসবে নানা ধরণের কর্মসূচীও নিয়েচে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যে একটি হল ‘হর ঘর তিরঙ্গা’। অর্থাৎ প্রতিটি ঘরে তিরঙ্গা পতাকা তুলবেন ভারতবাসী। এটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছেন। আর তা নিয়েই এদি‌ন একটি র‍্যালি বের করেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। তেখালি থেকে রেয়াপাড়া পর্যন্ত ওই মিছিল যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই মাঝপথে র‍্যালি আটকায় পুলিশ। হলদিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শ্রদ্ধা পাণ্ডে র‍্যালি আটকে দেন বলে অভিযোগ। তখনই দু’পক্ষের মধ্যে বাদানুবাদ শুরু হয়।

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, তেখালি থেকে রেয়াপাড়া ১৮ কিলোমিটার। তা পায়ে হেঁটে চলা কঠিন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত কর্মসূচী হর ঘর তিরঙ্গা পালন করতে চাই। আমার বিধানসভা ক্ষেত্রে সেই বার্তা পৌঁছে দিতেই তেরঙ্গা পতাকা নিয়ে হাঁটছি। আমরা কোনও রাজনৈতিক শ্লোগান দিচ্ছি না। তাছাড়া কোনও কোভিড প্রোটোকলও নেই। তা সত্ত্বেও পুলিশ কেন আটকাবে? প্রশ্ন তোলেন শুভেন্দু অধিকারী।

তখন পাল্টা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, এটা মোটরবাইক র‍্যালি চলছে। বিনা অনুমতিতে তা করা যায় না। আমরাও তিরঙ্গা পতাকাকে স্যালুট করি।

শুভেন্দু অধিকারী অভিযোগ তোলেন, রাজ্যের ডিজির নির্দেশে জেলার পুলিশ সুপার হলদিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শ্রদ্ধা পাণ্ডেকে দিয়ে আমায় আটকানোর চেষ্টা করছে।  আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে দাবি করব, কেন্দ্রীয় ক্যাডারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

Mailing List