শতাব্দী প্রাচীন দলের নাম শুনতেই হাতজোড় নিবেদন পিকে-র

 শতাব্দী প্রাচীন দলের নাম শুনতেই হাতজোড় নিবেদন পিকে-র
01 Jun 2022, 12:30 PM

শতাব্দী প্রাচীন দলের নাম শুনতেই হাতজোড় নিবেদন পিকে-র

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন : কংগ্রেস নিজের পতন ডেকে নিয়ে আসছে। আর সেই সঙ্গে অন্য দলেরও পতন ঘটাবে কংগ্রেস।  কংগ্রেসের সঙ্গে কাজ করলে তিনিও ডুবে যাবেন। যে কংগ্রেসে যোগ দেওয়া নিয়ে কিছু দিন আগেও ছিল আলোচনা, শতাব্দী প্রাচীন এই রাজনৈতিক দলের নাম শুনেই হাতজোড় করে নিজের অবস্থানের কথা জানিয়ে দিলেন প্রশান্ত কিশোর। কংগ্রেসের প্রসঙ্গ উঠতেই হাতজোড় করে পিকের নিবেদন, কেউ যেন ওই ডুবন্ত নৌকার দিকে না যান।

কয়েকদিন আগেও কংগ্রেসে যোগ দেওয়া নিয়ে আলোচনায় মগ্ন ছিলেন প্রশান্ত কিশোর। তিনি কথা বলেন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও। তারপরে জানিয়ে দেন যে তিনি যোগ দিচ্ছেন না কংগ্রেসে।

 এখন সেই প্রশান্ত কিশোরকেই কংগ্রেসের সাথে কাজ করার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তাঁর সাফ জবাব, ‘কংগ্রেস? না, ধন্যবাদ’। ঘটনাটি বিহারে ঘটেছে। সেখানে ভোটকুশলী তাঁর রাজনৈতিক সম্ভাবনা কতটা তা দেখতে রাজ্য জুড়ে সফর করছেন। সেখানেই তাঁকে এই নিয়ে  প্রশ্ন করা হয়। পিকে  হাতজোড় করে জানিয়ে দেন কংগ্রেসের সঙ্গে তিনি কাজ করতে আগ্রহী নন।  পিকে বলেন, ‘কংগ্রেস নিজেরও পতন ডেকে আনছে, অন্য সবারও পতন ঘটাবে দলটি।’

প্রশান্ত কিশোর রাজ্য সফরে গিয়েছিলেন একটি গ্রামে।  পিকে সেখানে নিজের কৃতিত্ব তুলে ধরে বলেন, ‘২০১৫ সালে আমরা বিহার জিতেছি। ২০১৭ সালে আমরা পঞ্জাবে জিতেছিলাম। ২০১৯ সালে অন্ধ্রপ্রদেশে জগন মোহন রেড্ডির জয় হয় আমাদের হাত ধরে। তামিলনাড়ু ও বাংলায় আমরা জিতেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘১১ বছরে আমরা একটি মাত্র নির্বাচনে হেরেছি, সেটি ছিল ২০১৭ সালের উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন। তাই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আমি আর কখনও কংগ্রেসের সঙ্গে কাজ করব না।’

প্রশান্ত কিশোর বলেন, ‘কংগ্রেস এমন একটি দল, যা কখনই ঐক্যবদ্ধ হতে পারবে না। বর্তমানে কংগ্রেস নেতাদের অবস্থা হল - তাঁরা নিজেরাও ডুববেন এবং যাঁরা তাদের সঙ্গে আছেন, তাঁদেরও ডুবিয়ে দেবেন। পিকে বলেন, ‘আমি যদি তাদের সঙ্গে যাই তাহলে আমিও নিশ্চিতভাবে ডুবে যাব।’

 এর আগে তিনি উদয়পুরে কংগ্রেসের চিন্তন শিবিরকে ‘ব্যর্থ’ বলে আখ্যা দিয়েছিলেন পিকে। গুজরাট ও হিমাচলপ্রদেশের আসন্ন নির্বাচনে কংগ্রেসের কিছুই হবে না বলেও ভবিষ্যদ্বাণী করেন তিনি।

ads

Mailing List