মমতার সভার দিনেই শীতলকুচিতে দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলা    

মমতার সভার দিনেই শীতলকুচিতে দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলা     
07 Apr 2021, 09:29 PM

মমতার সভার দিনেই শীতলকুচিতে দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলা  

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: কোচবিহারের শীতলকুচিতে সভা করে ফেরার পথে বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। দিলীপ ঘোষের দাবি  তৃণমূলের লোকজন তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ও পাথর ছোঁড়ে। আজকেই এই এলাকাতে সভা ছিল তৃনমূল কংগ্রেস দলনেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাঁর ওপরে হামলা নিয়ে নিজেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ছবি দেওয়ার পাশাপাশি ‘ফেসবুক লাইভ’-ও করেন দিলীপ ঘোষ।  যদিও তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

গাড়িতে তাঁর ওপর হামলার ছবি দিয়ে দিলীপ ঘোষ লিখেছেন, “ পশ্চিম বঙ্গের গণতান্ত্রিক অবস্থা খুব করুণ। তৃনমূলের গুন্ডারা দলের পতাকা নিয়ে আমার গাড়িতে বোমা ছোঁড়ে এবং গাড়ির কাঁচ ভেঙে দেয়। তারা আমাদের দলের অনেক কার্যকর্তা  ওপরেও হামলা করে এবং অনেক গাড়ি ভাঙচুর করে। কিন্তু পুলিশ চুপচাপ দাঁড়িয়ে ছিল।”

বুধবার এই এলাকাতেই সভা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। সভা ছিল দিলীপ ঘোষেরও। শীতলকুচি পঞ্চায়েত সমিতির মাঠে সভা ছিল দিলীপ ঘোষের। বিজেপি-র অভিযোগ, সভা শেষে ফেরার পথে তৃণমূল কর্মীরা হামলা চালায় রাজ্য সভাপতির গাড়িতে। সেইসঙ্গে কনভয়ে থাকা আরও কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ। দিলীপ সুস্থ থাকলেও কয়েক জন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের।

দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘আমার সভা শেষ হওয়ার পর যখন আমরা ফিরছি তখন মাথাভাঙায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা থেকে অনেক তৃণমূল সমর্থক ফিরছিল। সেই সময় তৃণমূল সমর্থকদের তরফে স্লোগান দেওয়া হয়। পাল্টা স্লোগান দেয় আমাদের কর্মীরা। আমি সবাইকে বলি শান্ত থাকতে। পুলিশের কাছে বারবার বলি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য। কিন্তু পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। উল্টে আমাদের বেশ কিছুক্ষণ সেখানে অপেক্ষা করতে বলা হয়।’’

https://www.facebook.com/917244741693768/posts/3782534335164780/?sfnsn=scwspwa

তাঁর অভিযোগ, ‘‘কিছুক্ষণ পরে যখন আমরা ফিরছি তখন অনেক তৃণমূল কর্মী রাস্তার পাশে দাঁড়িয়েছিল। তারাই হামলা চালায়। আমার গাড়িতে দুটো বোমা ছোড়া হয়েছে। পাথরও ছোঁড়া হয়েছে। উত্তরবঙ্গে বিজেপি-র ক্ষমতা বেশি। তাই ওরা অশান্তি করার চেষ্টা করছে। পুলিশ ওদের সাহায্য করছে। আমি নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছি।’’

দিলীপ ঘোষ বলেন,  “আমার ওপর এই ধরনের হামলা অনেকবার হয়েছে। কিন্তু নির্বাচনীবিধি চালু হওয়ার পর এই প্রথম এই ধরনের হামলা হল। দুষ্কৃতীরা তৃণমূলের ঝাণ্ডা ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে। এ যেন তালিবানি শাসন চলছে।”

যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। কোচবিহার জেলার তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় বলেন, ‘‘দিলীপ ঘোষ মিথ্যা কথা বলছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা শেষে ফেরার পথে আমাদের কর্মীদের গাড়িতেই হামলা চালানো হয়েছে। মানুষ বিজেপি-কে চায় না। তাই ওরা অশান্তি করার চেষ্টা করছে। কিন্তু এভাবে কাউকে বোকা বানানো যাবে না।’’

 

Mailing List