চুরির অভিযোগে ধৃতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে  বরাকরে  ফাঁড়িতে ভাঙচুর করে পুলিশের গাড়িতে  লাগিয়ে দেওয়া হল  আগুন

চুরির অভিযোগে ধৃতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে  বরাকরে  ফাঁড়িতে ভাঙচুর করে পুলিশের গাড়িতে  লাগিয়ে দেওয়া হল  আগুন
06 Jul 2021, 01:22 PM

চুরির অভিযোগে ধৃতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে  বরাকরে  ফাঁড়িতে ভাঙচুর করে পুলিশের গাড়িতে  লাগিয়ে দেওয়া হল  আগুন

 

 

আনফোল্ড বাংলা  প্রতিবেদন:   চুরির অভিযোগে ধৃত ব্যক্তির মৃত্যুকে কেন্দ্রে করে মঙ্গলবার রণক্ষেত্র হয়ে উঠল আসানসোলের কুলটির বরাকর এলাকা।  পুলিশ ফাঁড়িতে ভাঙচুর করে পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পুরো এলাকা থমথমে, সেখানে  নামানো হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে বরাকর এলাকা থেকে মহম্মদ আরমান নামে এক যুবককে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে আসে পুলিশ। তার  বিরুদ্ধে চুরি, ছিনতাইয়ের একাধিক অভিযোগ ছিল। তার বাড়ি থেকেই তাকে ধরে নিয়ে এসেছিল  পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে থানাতে গিয়ে পরিজনের লোকেরা জানতে পারে,  অসুস্থ হয়ে আসানসোল জেলা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে আরমান খান নামের ওই যুবক। হাসপাতালে গিয়ে পরিজনরা জানতে পারেন  সেখানেই সে  মারা গিয়েছে।

এরপরই থানাতে এসে বচসা শুরু করে তার পরিবার এবং এলাকার লোকজন। মুহূর্তের মধ্যেই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে এলাকা। থানায় ভাঙচুর শুরু হয়। পুলিশের গাড়িতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।  এলাকার দোকানপাট বন্ধ করে, রাস্তা অবরোধ করে দেওয়া হয়।   

এই ঘটনার জেরে পুরো এলাকা থমথমে। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিকরা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে  নেমেছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। আসানসোল থেকে গিয়েছে বাড়তি ফোর্স।  ব়্যাফকে নামানো হয়েছে।

আরমানের আত্মীয় এবং  এলাকার লোকজনের দাবি, পুলিশ আরমাঙ্কে মারধর করে মেরে ফেলেছে।  আমরা ন্যায় বিচার চাই। যারা তাকে মেরেছে তাদের উপযুক্ত শাস্তিও দাবি করেন তারা।

 

 

ads

Mailing List