কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন নেই, উপত্যকায় শীঘ্রই ভোট, ঘোষণা অমিত শাহের

কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন নেই, উপত্যকায় শীঘ্রই ভোট, ঘোষণা অমিত শাহের
06 Oct 2022, 06:42 PM

কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন নেই, উপত্যকায় শীঘ্রই ভোট, ঘোষণা অমিত শাহের

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: জম্মু ও কাশ্মীরে খুব শিগগিরই নির্বাচন হবে। বুধবার বারামুলার এক সভা থেকে এমনই ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। জানিয়ে দিলেন কাশ্মীর সমস্যা মেটাতে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার কোনও প্রয়োজন নেই। ভারত নিজেরাই তা করতে সক্ষম। কাশ্মীরে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ চলছে। সেই কাজ শেষ হলেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জোরের সঙ্গে আশ্বাস দেন তিনি। ৩৭০ ধারা বিলোপের পর এখনও ভোট করানো যায়নি উপত্যকায়। ৩৭০ তুলে দিয়ে কেন্দ্র দাবি করেছিল উপত্যকায় উগ্রপন্থা বলে কিছু থাকবে না। সেটা বাস্তবে দেখা যাচ্ছে না।

তবে বুধবার বারামুলায় গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সাফ জানিয়ে দিলেন, কাশ্মীর সমস্যার সমাধানের জন্য পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলার কোনও প্রশ্নই নেই। আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি, ভোটার লিস্ট সংশোধনের কাজ শেষ হলেই কাশ্মীরে নির্বাচন হবে। ৩৭০ ধারা বিলোপের এটাই প্রথম অমিত শাহর কাশ্মীর সফর। তাঁর কাশ্মীর সফর উপলক্ষ্যে এলাহি নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। সতর্কতা হিসেবে কোথাও কোথাও ইন্টারনেটেও বন্ধ করে রাখা হয়েছে। চলতি বছরের আগস্ট মাসে শুরু হয়েছে কাশ্মীরে ভোটার লিস্ট সংশোধনের কাজ। মনে করা হচ্ছে ২৫ নভেম্বরের মধ্যে তা শেষ হয়ে যাবে। জল্পনা ছিল অমিত শাহর সভায় লোক হবে না। দেখা গেল বাসে চাপিয়ে লোকজন আনা হয় বারামুলার সভায়। এদিন অমিত শাহের ভাষণ চলাকালীন কাছাকাছি একটি মসজিদ থেকে আজান শুরু হয়। আজান শুরু হতেই ভাষণ থামিয়ে দেন শাহ। পরে আবার শুরু করেন। কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে অনেকেই পাকিস্তানের কথা টেনে আনেন। এনিয়ে অমিত শাহ বলেন, কেউ কেউ বলে আমাদের পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলা উচিত। কেন কথা বলব? একেবারেই না। বরং আমরা কথা বলব গুজ্জর, পাহাড়ি ও কাশ্মীরের তরুণদের সঙ্গে। আপনারা বলুন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে কটা গ্রামে বিদ্যুত রয়েছে? অথচ গত ৩ বছরে কাশ্মীরের প্রতিটি গ্রামেই বিদ্যুত পৌঁছে গিয়েছে বলেই দাবি করেন অমিত শাহ। কাশ্মীরে উন্নয়ন না হওয়ার এদিন ফের একবার নেহরু-গান্ধি, ফারুক আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতিদের দায়ী করেন শাহ।

Mailing List