মালদায় নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণ করে বিহারে পাচারের অভিযোগ প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে

17 May 2022, 05:30 PM

মালদায় নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণ করে বিহারে পাচারের অভিযোগ প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে

 

নারায়ণ সরকার, মালদা

    

মাঠে শৌচকর্ম করতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে এক নবম শ্রেণীর আদিবাসী ছাত্রীকে অপহরণ করে পার্শ্ববর্তী রাজ্য বিহারে পাচারের অভিযোগ উঠল প্রতিবেশীদের বিরুদ্ধে। ঘটনার আট দিন কেটে গেলেও এখনো পর্যন্ত অপহরণ হয়ে যাওয়া ওই নাবালিকার কোনও খোঁজ মেলেনি। অভিযোগের তির প্রতিবেশী এক মহিলা ও তার স্বামীর দিকে। এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার পিপলা গ্রামে। ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকা জুড়ে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, পিপলা গ্রামের ১৪ বছরের নাবালিকা মেয়েকে চলতি মাসের প্রায় আট দিন আগে সন্ধ্যা বেলা মাঠে শৌচকর্ম করতে নিয়ে যাবে বলে প্রতিবেশী যশোদা ঋষি সঙ্গে করে নিয়ে যান। তারপর থেকে আর মেয়ের খোঁজ পাওয়া যায় নি। এলাকায় খোঁজাখুঁজি করলেও মেয়ের কোন হদিশ মেলেনি। এমনকি যশোদা আর তার স্বামীকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেও কোনো সদুত্তর মেলেনি বলে অভিযোগ ওই নাবালিকা মেয়ের মায়ের। ওই নাবালিকার মায়ের দাবি, তার মেয়েকে অপহরণ করে বিহারে পাচার করা হয়েছে এবং এই পাচারের পেছনে প্রতিবেশী যশোদা ঋষি ও তার স্বামী মথুর ঋষি প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িয়ে আছেন।

নাবালিকার পরিবারের লোকেরা হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। তারপর থেকেই অভিযুক্তরা পলাতক।

ads

Mailing List