৬৭৫ টাকা নিয়ে বিবাদের জেরে নানুরে খুন ট্রাক্টর মালিককে! তদন্তে পুলিশ

৬৭৫ টাকা নিয়ে বিবাদের জেরে নানুরে খুন ট্রাক্টর মালিককে! তদন্তে পুলিশ
02 Jul 2022, 03:00 PM

৬৭৫ টাকা নিয়ে বিবাদের জেরে নানুরে খুন ট্রাক্টর মালিককে! তদন্তে পুলিশ

 

শুভদীপ গুঁই, নানুর

 

৬৭৫ টাকার জন্য পড়শির সঙ্গে বচসা থেকে বিবাদ। আর তারই জেরে খুন হতে হল প্রৌড়কে! এমনই ঘটনা ঘটল বীরভূম জেলার নানুরে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ব্যক্তির নাম শেখ শাহনেওয়াজ (৫৫)। বীরভূম জেলার নানুরের থুপসড়া অঞ্চলের হাড়মুড় গ্রামের বাসিন্দা। ঘটনাটিও ঘটেছে ওই গ্রামে। ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৪ জন জখম হয়েছে। আহতরা প্রত্যেকেই বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি। এদিকে ঘটনার তদন্তে নেমেছে নানুর থানার পুলিশ। ঘটনায় জনিত সন্দেহে ছয় জনকে আটকও করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

 

ঘটনার সূত্রপাত জমির চাষ দেওয়াকে কেন্দ্র করে। শাহনেওয়াজ এর ট্রাক্টর রয়েছে। গ্রামের বাসিন্দা শেখ শাহজাহান, শেখ তারু, শেখ জামিরদের বীজতলাতে ট্রাক্টর দিয়ে চাষ করেছিলেন। তাতে ট্রাক্টর ভাড়া হয়েছিল ৬৭৫ টাকা। কিন্তু ৬০০ টাকা মিটিয়ে দিলেও ৭৫ টাকা দেয়নি তিনজন। ওই তিনজন সম্পর্কে ভাই। তা নিয়েই বিবাদ শুরু। ক’দিন ধরেই চলছিল বচসা।

শনিবার তা চরমে ওঠে। সূত্রের খবর, এদিন সকালে শেখ শাহনাওয়াজের দুই ছেলের সঙ্গে শেখ শাহজাহান, শেখ তারু ও শেখ জামিরের ঝগড়াঝাটি শুরু হয়। বেলা ১০টা নাগাদ শেখ শাহনাওয়াজের ভাই শেখ সদাই মসজিদে নমাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় দু’জনেকে প্রকাশ্যে রাস্তায় লাঠি, চেলা কাঠ দিয়ে মারধর করা শুরু হয়। শেখ সদাই পালিয়ে যায়। তবে শেখ শাহনেওয়াজ পালাতে পারেননি। তাঁকে একা পেয়ে পিটিয়ে খুন করা হয় বলেই অভিযোগ।

 

শাহনেওয়াজের স্ত্রী হামিদা বিবি বলেন, “চাষ করার জন্য ট্রাক্টর নেওয়ার জন্য ৬৭৫ টাকার চুক্তি হয়েছিল। ৬০০ টাকা দিলেও বাকি ৭৫ টাকা দিচ্ছিল না। শনিবার সেই টাকা চাইতে যেতেই এভাবে মেরে ফেললো।’’ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

 

Mailing List