মিঠুন এখন আর জাত গোখরো নন, এখন আলু পোস্ত খান

মিঠুন এখন আর জাত গোখরো নন, এখন আলু পোস্ত খান
24 Nov 2022, 11:49 PM

মিঠুন এখন আর জাত গোখরো নন, এখন আলু পোস্ত খান

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। রাজনীতিক মিঠুন চক্রবর্তী। বদল ঘটেই চলেছে।

সিনেমা আর রাজনীতি – এখন আর গুলিয়ে ফেলতে চান না। তাই এখন আর ডায়লগ নয়। তাহলে কী? মিঠুন বলছেন, ‘‘ডায়লগ, বক্তৃতা ছাড়ুন! আমার সামনে বলুন কি পাচ্ছেন আর কি পাচ্ছেন না।’’ এক কথায় পুরোদস্তুর রাজনীতির কথা।

কিছুদিন আগেই বিধান সভা নির্বাচনের আগেও প্রচারে এসেছিলেন তিনি। প্রচারের শুরুতেই ঝড় তুলেছিলেন। কারণ, তাঁর মুখে ছিল সিনেমার ডায়ালগ। জন সমাবেশে আগত ব্যক্তিদের অনুরোধে বলতেন, ‘‘আমি জাত গোখরো। এক ছোবলেই..!’’ কখনও বলতেন, ‘‘মারবো এখানে...’’ তারপর সমাবেশে আগতদের দিকে মাইক্রোফোন ঘুরিয়ে বুঝিয়ে দিতেন বাকিটা।

পরিস্থিতি বদলেছে। তাই রাজনীতিতে হয়তো ডায়ালগকে আর রাখতে চাইছেন না। তাই বলছেন,‘‘সঠিক ভাবে সবকিছু পেতে হলে পঞ্চায়েত প্রতিনিধিকে সঠিকভাবে নির্বাচন করতে হবে। কতদিন আর লোক ঠকিয়ে চলবে। উপরে যিনি আছেন, তিনি সবকিছু ঠিক করে দেবেন। কোনও চোরকে রেয়াত করা যাবে না। পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হন।’’

বলছেন, ‘‘আবাস যোজনা প্রকল্পে টাকা দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। কেন টাকা দেওয়া হয়নি? কারণ, খরচের হিসেব দেওয়া হয়নি। ঘর পেতে গেলে তৃণমূলের মাসি, কাকিমা হতে হবে। আমি বলে গেলাম বিজেপি পঞ্চায়েতে ক্ষমতায় এলে আপনার বাড়ি প্রথম হবে।’’

সিনেমার ডায়লগ ছেড়ে মানুষের সঙ্গে, মানুষের পাশে থাকার কথা। উন্নয়নের কথা জরুরি। এখন সেটা বুঝেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। তাই পঞ্চায়েতের আগে বাঁকুড়া ও পুরুলিয়াতে একই পথে হাঁটলেন তিনি। বৃহস্পতিবার তাই বাঁকুড়ার মেজিয়াতে এইভাবেই বক্তব্য রাখলেন। তারপর বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউড়ির বাড়িতে গিয়ে খেলেন আলু পোস্ত আর ভাত।

Mailing List