পুলিশ কেস ডায়েরি লিখতে জানে না! প্রকাশ্যে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

পুলিশ কেস ডায়েরি লিখতে জানে না! প্রকাশ্যে বললেন মুখ্যমন্ত্রী
13 Feb 2020, 12:00 AM

পুলিশ কেস ডায়েরি লিখতে জানে না! প্রকাশ্যে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন, দুর্গাপুর: পুলিশ ও আইনজীবীদের কাজ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এমনকী মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানালেন, অনেক পুলিশ আধিকারিক কেস ডায়েরি লিখতে জানেন না! আর তারই জেরে অপরাধীরা ছাড়া পেয়ে যাচ্ছে। আর সরকারি আইনজীবীদের প্রতি তাঁর বার্তা, ‘‘এরও নেব, তারও নেব। দু’ই ক্ষেত্রেই সাফাই গাইব, তা হবে না। সরকারি আইনজীবীকে সরকার টাকা দেয়। সরকারি টাকা সস্তা নয়।’’

পুলিশের ওপর সাধারণ মানুষের ক্ষোভ বাড়ছিলই। বহু ক্ষেত্রে পুলিশ অভিযোগ পর্যন্ত নেয় না বলে অভিযোগ। এমনকী, থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে, অভিযোগ লিপিবদ্ধ করার পরিবর্তে পুলিশ খারাপ ব্যবহার করে। বহু মানুষ তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, তাহলে মানুষ বিচারের আশায় কার কাছে যাবে? প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই দিদিকে বলো কর্মসূচীতে এনিয়ে ভুরি ভুরি অভিযোগ জমা পড়ে। মুখ্যমন্ত্রী তা নিয়ে পুলিশ কর্তাদের কড়া বার্তাও দিয়েছিলেন। যদিও এখনও পুলিশের এই উদাসীনতা চলছে বলেই অভিযোগ। তাই এবার প্রকাশ্যেই সে কথা বলতে হল মুখ্যমন্ত্রীকে। বৃহস্পতিবার দুর্গাপুরে প্রশাসনিক সভা ছিল মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি প্রকাশ্যেই বলেন, পুলিশকে সব অভিযোগ নিতে হবে। তারপর খতিয়ে দেখবে, তার মধ্যে কী সারবত্তা রয়েছে। কিন্তু অভিযোগ না নিয়ে, আগেই বলে দিলে চলবে না যে, ওই ঘটনার মধ্যে কোনও সারবত্তা নেই। শুধু এটাই নয়, আরও গভীরে গিয়ে রাজ্যের সর্বত্র প্রশাসনিক কর্তা তথা মুখ্যমন্ত্রীকে এক গুরুত্বপূর্ণ কথাও বলতে হল প্রকাশ্যে। সেটা কী? অনেক পুলিশ কেস ডায়েরিই লিখতে জানেন না। ফলে বহু অপরাধী ছাড়া পেয়ে যায়। তাই মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ, আইন জানা ভালো আধিকারিকদের দিয়ে কেস ডায়েরি লেখাতে হবে। যাতে কোনওভাবেই অভিযুক্তরা ছাড়া না পায়।

আর সে কথা বলতে গিয়েই সরকারি আইনজীবীদের কাজকর্ম নিয়েও প্রশ্ন তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বাদি ও বিবাদী- উভয়পক্ষের কাছ থেকেই ফি নিয়ে কাজ করে অনেক সরকারি আইনজীবী। আর তা যাতে প্রকাশ্যে না-আসে সে ব্যাপারে কৌশলও রয়েছে। নিজে সেই মামলা যেহেতু প্রকাশ্যে লড়তে পারবেন না, তাই তাঁর কাছের কোনও আইনজীবীর কাছে অন্য পক্ষকে পাঠান। এভাবেই দু’পক্ষের কাছ থেকেই রোজগার করেন। এই ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, ‘‘সরকারি আইনজীবীকে সরকার টাকা দেয়। সরকারি টাকা সস্তা নয়।’’ তাই দু’পক্ষের সাফাই না গেয়ে সরকারি পক্ষের হয়েই যাতে সওয়াল জবাব করেন, তাও সাফ জানিয়ে দেন তিনি।

Mailing List