মলোকাই চ্যানেল জয়ী সাঁতারু সায়নীকে দেওয়া হবে মাদার ডেয়ারীর দুধ ও মাংস, চাকরির জন্যও মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবেন, বললেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

মলোকাই চ্যানেল জয়ী সাঁতারু সায়নীকে দেওয়া হবে মাদার ডেয়ারীর দুধ ও মাংস, চাকরির জন্যও মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবেন, বললেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ
05 May 2022, 12:22 AM

মলোকাই চ্যানেল জয়ী সাঁতারু সায়নীকে দেওয়া হবে মাদার ডেয়ারীর দুধ ও মাংস, চাকরির জন্যও মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবেন, বললেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

 

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান

 

হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের মলোকাই চ্যানেল জয় করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বাংলার মেয়ে সায়নী দাস। শুধু ভারত নয়, এশিয়া মহাদেশের মধ্যে তিনিই প্রথম মহিলা সাঁতারু যিনি এই নজির সৃষ্টি করতে পেরেছেন। সেই সায়নী যাতে একটা সরকারী চাকরির পায় তার ব্যাপারে এবার  খোদ রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ উদ্যোগী হলেন।

 

মলোকাই চ্যানেল জয়ের ইতিহাস সৃষ্টির করে মঙ্গলবার রাতে পূর্ব বর্ধমানের কালনা শহরের বারুই পাড়ায় বাড়িতে ফেরেন জলকন্যা সায়নী। সেই খবর পেয়ে বুধবার সকালেই সায়নীকে শুভেচ্ছা জানাতে তাঁদের বাড়িতে পৌছে যান রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

পাশাপাশি এদিনই সায়নীর বাবা রাধেশ্যাম দাসের অনুরোধ মেনে তিনি সায়নীর একটা সরকারী চাকরি করে দেওয়ায় ব্যাপারে আশ্বস্ত করেন। বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দৃষ্টি আকর্ষন করবেন বলেও সায়নীকে জানান মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। মন্ত্রীর কাছ থেকে এই আশ্বাস পেয়ে খুশি জলকন্যা সায়নী ও তাঁর পরিবার।

তবে শুধু রাজ্য সরকারী চাকরি করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েই খান্ত হননি মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। তিনি সায়নীর মুখ থেকে মলোকাই জয়ের গোটা কাহিনী শোনেন। তার পরেই মন্ত্রী জানান, আগামী দিনে সায়নী যাতে সাঁতারের লড়াইয়ে শারীরিক সক্ষমতা অক্ষুন্ন রাখতে পারে তার জন্য মাদার ডেয়ারি সংস্থার তরফে সায়নীকে দুধ ও মাংস দেওয়া হবে। সায়নীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে স্বপন দেবনাথ এদিন এও বলেন, “সায়নী মলোকাই চ্যানেল জয়ের ইতিহাস তৈরি করায় আমি যেমন গর্বিত ,তেমনই গর্বিত গোটা বাংলার মানুষ। আর সায়নীর এই কৃতিত্বের জন্য সবথেকে বেশী যাঁদের আবদান তাঁরা হলেন সায়নীর বাবা রাধেশ্যাম বাবু ও মা রুপালিদেবী। ওনারা ত্যাগ শিকার করে ও সাহস যুগিয়ে যাবার জন্যেই সায়নী এতবড় দুঃসাহসিক অভিযানে সফল হয়েছে।এর জন্যে সায়নীর বাবা ও মায়ের হাতেও পুষ্পস্তবক  তুলে দিয়ে তিনি সম্বর্ধনা জানান মন্ত্রী। শুভেচ্ছা জানিয়ে সায়নীর বাড়ি ছাড়ার ঠিক আগে রাধেশ্যামবাবু ও রুপালিদেবীর প্রশংসা আরও একবার করে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন, “আপনাদের মেয়ে সায়নী সপ্তসিন্ধু জয় করেও পৃথিবীর সেরা সাঁতারু হবে এই প্রত্যাশা আমার রয়েছে। ঈশ্বরের কাছে আমি সেই প্রার্থনাই রাখছি।”

 

 

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের পাশাপাশি এদিন কালনা পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান তপন পোড়েল ও গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির রাজ্য সভানেত্রী তথা প্রাক্তন মন্ত্রী অঞ্জু কর সহ অন্য  বিশিষ্টজনেরা এদিন বাড়িতে গিয়ে সায়নীকে শুভেচ্ছা জানান। রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মনোজ তেওয়ারীও টুইট করে সায়নীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। বেঙ্গল অ্যামেচার সুইমিং অ্যাসেসিয়েশনের সভাপতি ও সুইমিং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার সহ-সভাপতি রামানুজ মুখোপাধ্যায় এদিন বলেন,“সায়নী অদম্য জেদী। এই কারণেই সায়নী মলোকাই জয়ের ইতিহাস সৃষ্টি করতে পেরেছে। এমনকি এই অদম্য জেদ ও মানসিক দৃঢ়তা থাকার জন্যই সয়নী সপ্তসিন্ধুও জয় করতে পারবে“।

 

রাধেশ্যাম বাবু বলেন, আগামী অক্টোবর মাসেই তিনি চাকুরী থেকে অবসর নেবেন। তখন কিভাবে মেয়ে সায়নীর পাশে দাঁড়াবেন তা নিয়ে তিনি চিন্তায় রয়েছেন। সেই কথা এদিন তিনি রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ মহাশয়কে জানান। রাজ্য সরকারের যাতে সায়নীকে একটা সরকারী চাকরি দিয়ে তাঁর পাশে দাঁড়ায় সেই আবেদন তিনি মন্ত্রীর কাছে রাখেন। মন্ত্রী সেই ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছেন। এই বিষয়ে  মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।মন্ত্রীর এই ঘোষনায় তাঁরা যথেষ্টই খুশি বলে রাধেশ্যাম বাবু ও রুপালিদেবী জানিয়েছেন। একই সঙ্গে তাঁরা বলেন, একটা সরকারী চাকরী হয়েগেলে দুশ্চিন্তাহীন হয়ে সায়নী সপ্তসিন্ধু জয়ের লড়াইয়েও সফল হবে।

ads

Mailing List