২০ কোটি বছর আগের আদিম মাকড়সা! কিভাবে খুঁজে পাওয়া গেল মেদিনীপুরে

২০ কোটি বছর আগের আদিম মাকড়সা! কিভাবে খুঁজে পাওয়া গেল মেদিনীপুরে
01 Oct 2022, 10:15 AM

২০ কোটি বছর আগের আদিম মাকড়সা! কিভাবে খুঁজে পাওয়া গেল মেদিনীপুরে

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন, মেদিনীপুর: লকডাউনের সময়টুকুতে মানুষ ছিল খাঁচাবন্দি। আর সেই সুযোগে প্রাণীকুল মনের আনন্দে পৃথিবীর জমিতে ঘুরে বেড়িয়েছে। বেরিয়ে পড়েছিল প্রাচীন মাকড়সা গুলোও। বির্বতনে মাকড়সা প্রায় ৪০ কোটি বছর আগে পৃথিবীর জমিতে পা রেখেছিল। তবে মাকড়সার জন্মটা কোনও স্থলজ সন্ধিপদী প্রাণী থেকেই হয়েছিল। যে মাকড়সার প্রথম ফসিল বিজ্ঞানে নথিভূক্ত করা গিয়েছিল তার বয়স ৩৮ কোটি বছর। অর্থাৎ ডাইনোসর এই পৃথিবীর বুকে দাপিয়ে বেড়াবার ১৫ কোটি বছর আগে পৃথিবীর প্রাচীন প্রকৃতির যাবতীয় সম্পদ আহরণ করে ফুলে-ফেঁপে উঠেছিল।

মস ও ফার্ন ভরা পৃথিবীতে সেই মাকড়সা গুলো ছোট ছোট সন্ধিপদী প্রাণী আরশোলা, ফড়িং শিকার করে খেত। তবে পৃথিবীতে ডাইনোসর আসার সঙ্গে মাকড়সা গুলো নিজেদের অনেকখানি বদলে ফেলে। ঠিক সেই সময়ে প্রায় ২৫ কোটি বছর আগে পৃথিবীতে আবির্ভাব হয় সেই মাকড়সার, যাদের আমরা প্রায়শই এখন ঘরে, বারান্দায়, বাগানে দেখতে পায়। নতুন বিবর্তিত মাকড়সা গুলো ডাইনোসরের যুগ তৈরি করতে শিখেছিল জাল। যা দিয়ে তারা ফাঁদ পেতে শিকার করতে শুরু করল। এখনকার মাকড়সা গুলোর সঙ্গে আদিম মাকড়সাদের তফাৎ দাঁতের গঠন এবং বুননযন্ত্রের অবস্থানের পার্থক্যে। এখনকার মাকড়সা গুলোর আর আদিম মাকড়সার কামড়ের দাগের বিস্তর পার্থক্য। যে সমস্ত বিষাক্ত মাকড়সার কামড়ে মানুষের মৃত্যুর ঘটনা নথিভুক্ত আছে সেগুলি ভারতে প্রায় মেলে না বললেই চলে। বর্ষার শুরুতে প্রজননের জন্য ঘুরে বেড়ানো মাকড়সা গুলো কে মেরে ফেলা শুধুমাত্র কুসংস্কার এবং ভয়ের বশবর্তী হয়েই। এই রকমই একটি আদিম মাকড়সার খোঁজ পাওয়া গেল ঝাড়গ্রামের নয়াগ্রাম থেকে। প্রথম বছরের ছাত্র চন্দন দণ্ডপাটকে সঙ্গে নিয়ে লকডাউনের সময় বন্যপ্রাণী নথিভূক্তকরণে বেরিয়ে কেশপুর কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক সুমন প্রতিহার খোঁজ দিলেন সেই মাকড়সার। বিজ্ঞান যাকে Idiopsnilagiri নামে চেনে।

এরা গর্তে থাকে। তাই এদের ট্রাপডোর স্পাইডারও বলা হয়। গর্তের ভেতরে আবার দরজাও তৈরি করে। যাতে কেউ সেখানে ঢুকে পড়তে না পারে। দশ থেকে কুড়ি কোটি বছর আগে এদের আবির্ভাব। ২০১৯ সালে উড়িষ্যার নীলগিরি অঞ্চল থেকে প্রথম পাওয়া গিয়েছিল এই মাকড়সা। পশ্চিমবঙ্গে এই প্রথম মুক্ত করা গেল আদিম এই মাকড়সা প্রজাতির। দ্য জার্নাল অব ব্রিটিশ ট্যারেন্টুলা সোসাইটি থেকে গবেষণাপত্রটি প্রকাশিতও হয়েছে। তাঁর কথায়, বন্যপ্রানের কাজের সময় নতুন কিছু খুঁজে পাবার আনন্দই আলাদা।

Mailing List