জাতির জনক গান্ধীজীকে ‘কাকু’ বলে লেদু, তাই ডান্ডা দেওয়া চশমা খুলে সানগ্লাস পরিয়ে দিল মূর্তিতে!  

জাতির জনক গান্ধীজীকে ‘কাকু’ বলে লেদু, তাই ডান্ডা দেওয়া চশমা খুলে সানগ্লাস পরিয়ে দিল মূর্তিতে!   
04 Jul 2021, 11:23 PM

জাতির জনক গান্ধীজীকে ‘কাকু’ বলে লেদু, তাই ডান্ডা দেওয়া চশমা খুলে সানগ্লাস পরিয়ে দিল মূর্তিতে!

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন, বর্ধমান: গান্ধীজীকে তিনি নাকি কাকু বলে সম্বোধন করেন। তাঁরই পাদদেশে তাঁর বাস। তাই মোহন দাস করমচাঁদ গান্ধীর চোখে সাধারণ ডান্ডার চশমা তার না পসন্দ। সেই চশমা খুলে পরিয়ে দেওয়া হল সানগ্লাস!  এমন কান্ড দেখে তো হতবাক মানুষ। অবশেষে পুলিশ সেই ব্যক্তিকে আটকও করেছে। এমনই ঘটনা ঘটল বর্ধমান শহরের উপকন্ঠে শালবাগান এলাকায়।

 

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তের নাম বিনয় রায় ওরফে লেদু। মাঝবয়সী লেদু অবশ্য আকন্ঠ মদ্যপান করেই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। তাই পুলিশ ধরার পরেও তার হুঁশ ফেরেনি। লেদুর সাফাই, 'এখানে সবসময় বসি। ওনাকে কাকু কাকু বলে ডাকি। এটা এরকম হবে বুঝিনি। ক্ষমা চেয়ে নিলাম।'

বর্ধমান শহরের শেষ প্রান্তে শালবাগান। পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের একপ্রান্তে। যেখানে গান্ধীজীর পূর্ণাবয়ব মূর্তি রয়েছে। শনিবার এলাকার বাসিন্দারা দেখেন, কে বা কারা গান্ধীজির মূর্তিতে কালো স্নানগ্লাস পরিয়ে দিয়েছে। যা নিয়ে হৈচৈ পড়ে যায়। মানুষজন ছি ছি করতে থাকেন। অবশেষে জানা যায় লেদু ওরফে বিনয় নামের এক ব্যক্তি গান্ধীজির চশমা খুলে কালো চশমা পরিয়ে দেয়। আসলে লেদু নাকি তখন মদ্যপ অবস্থায় ছিল। ফলে জাতির জনককে ‘কাকু’ বলতে দ্বিধা করেনি। চশমা খুলে সানগ্লাস পরাতেও তার হাত কাঁপেনি।

ঘটনার কথা শুনে রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র দেবু টুডু বলেন, এটা ক্ষমার অযোগ্য। এরকম ভাবতেই লজ্জা লাগছে।’

ads

Mailing List