প্রথমে না পরে হ্যাঁ, ভূমিপুজোর আমন্ত্রিতর তালিকায় ভারতীর সাথে নাম উঠল জোশী-আডবানীর

প্রথমে না পরে হ্যাঁ, ভূমিপুজোর আমন্ত্রিতর তালিকায় ভারতীর সাথে নাম উঠল জোশী-আডবানীর
01 Aug 2020, 07:18 PM

প্রথমে না পরে হ্যাঁ, ভূমিপুজোর আমন্ত্রিতর তালিকায় ভারতীর সাথে নাম উঠল জোশী-আডবানীর

 

আনফোল্ড বাংলা ডেস্ক: অবশেষে রাম মন্দিরের ভূমিপুজোয় উপস্থিত থাকতে আমন্ত্রণ পাচ্ছেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথা রাম মন্দির আন্দোলনের দুই পুরোধা লালকৃষ্ণ আডবানী এবং মুরলী মনোহর জোশী। রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট সূত্রের খবর, ওই দুই নেতাকেই ফোনে আমন্ত্রণ জানানো হবে। তবে, ভগ্ন শারীরিক অবস্থার জন্য তাঁদের অযোধ্যায় হাজির থাকার সম্ভাবনা কম। তাঁরা সম্ভবত ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই অনুষ্ঠান দেখবেন।

উল্লেখ্য, আগামী বুধবার ৫ আগস্ট সকাল ১১টা নাগাদ রাম মন্দিরের ভূমিপুজো হওয়ার কথা। অথচ, শনিবার সকাল পর্যন্ত রাম মন্দির আন্দোলনের অন্যতম এই দুই কাণ্ডারি ভূমিপুজোর অনুষ্ঠানে হাজির থাকার আমন্ত্রণ পাননি। এদিকে, অন্য প্রায় সব অতিথিই শনিবার সকাল পর্যন্ত আমন্ত্রণ পেয়ে যান। যা নিয়ে এদিন সকাল থেকেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে লেখালিখি শুরু হয়ে যায়। বিস্তর সমালোচনাও হয়। সেই বিতর্কের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ট্রাস্ট সূত্রে জানানো হয়েছে, লালকৃষ্ণ আডবানী এবং মুরলি মনোহর জোশীকে অবশ্যই আমন্ত্রণ জানানো হবে।

ট্রাস্টের তরফে ফোন করে তাঁদের অনুষ্ঠানে আসতে বলা হবে। খোদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান চম্পত রাই তাঁদের আমন্ত্রণ জানাবেন। যদিও ভগ্ম স্বাস্থ্যের জন্য এই করোনা পরিস্থিতিতে সম্ভবত দুই নেতার কেউই অযোধ্যা যাবেন না। সারাজীবন যে দিনটার জন্য স্বপ্ন দেখেছেন লালকৃষ্ণ আডবানী, মুরলী মনোহর জোশীরা, সেই দিনটা হয়তো তাঁরা চাক্ষুস করতে পারবেন না। দেখতে হবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাড়িতে বসেই।

এমনিতে করোনা পরিস্থিতিতে ছোট করে হচ্ছে ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান। আমন্ত্রিতদের তালিকা ক্ষুদ্র। সেই তালিকায় নাম আছে আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত, বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সহ-সভাপতি সম্পত রাই, রাম জন্মভূমি ন্যাসের প্রধান মোহন্ত নিত্যগোপাল দাস, যোগগুরু রামদেব-সহ বহু সাধু-সন্তের। শনিবার জানা যায় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতী, এবং উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিংও আমন্ত্রিত। কিন্তু এত লোক আমন্ত্রণ পেলেও আডবানী-জোশীরা ডাক পাননি। সরকারি সূত্রের খবর, করোনা সংক্রান্ত প্রটোকলের জন্যই শনিবার সকাল পর্যন্ত আডবানীদের ভূমিপুজোয় সশরীরে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ করা হয়নি। কিন্তু এর জেরে সৃষ্টি হয় বিতর্ক। সম্ভবত সেই বিতর্ক ধামাচাপা দিতেই দুই বর্ষীয়ান নেতাকে ফোনে আমন্ত্রণ জানানো হবে। যদিও ট্রাস্টের দাবি, শুধু আডবানী বা জোশী নন, সব নেতাকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ফোনের মাধ্যমেই।

Mailing List