ফের জামতাড়া গ্যাং-এর কারসাজি, শিক্ষিকার অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও ৬৫ হাজার টাকা

ফের জামতাড়া গ্যাং-এর কারসাজি, শিক্ষিকার অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও ৬৫ হাজার টাকা
25 Sep 2020, 12:07 AM

ফের জামতাড়া গ্যাং-এর কারসাজি, শিক্ষিকার অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও ৬৫ হাজার টাকা

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: গ্রাহকের কাছে ব্যাংককর্মীর পরিচয় দিয়ে ভুয়ো ফোন যায়নি। কোনও OTP-ও আসেনি। তবুও নিমেষের মধ্যে ৬৫ হাজার টাকা উধাও হয়ে গেল শিক্ষিকার অ্যাকাউন্ট থেকে। ঘটনাটি ঘটেছে আসানসোলের সালানপুর এলাকায়। হ্যাক হয়েছে প্রাথমিক স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা তথা বামপন্থী নেত্রী বহ্নি ঘোষের ব্য়াংক অ্যাকাউন্ট। 

জানা গিয়েছে, বুধবার রাত ১১ টা ৪৮ মিনিট থেকে টাকা গায়েব হওয়া শুরু হয়। ভোরের মধ্যেই ১৫ বার বহ্নিদেবীর অ্যাকাউন্ট থেকে মোট ৬৫ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়। প্রথমে ৫ হাজার টাকা করে ১১ বার, তারপর ৩ হাজার টাকা করে দু’বার এবং ২ হাজার টাকা করে দু’বার টাকা তোলা হয়েছে। রূপনারায়ণপুরের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংকে বহ্নিদেবীর স্যালারি অ্যাকাউন্ট। সেখান থেকেই টাকা উধাও। এখন অ্যাকাউন্টে পড়ে আছে মাত্র ১৯০০ টাকা। ঘটনার নেপথ্যে জামতাড়া গ্যাং রয়েছে বলেই অনুমান পুলিশের।

বহ্নিদেবীর ঋণ নেওয়া রয়েছে স্যালারি অ্যাকাউন্টটি থেকে। মাসের EMI কাটার পর তার মোবাইলে মেসেজ আসে। তাতেই অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা গায়েব হওয়ার কথা জানতে পারেন। সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকের ম্যানেজার ও পুলিশকে সমস্ত ঘটনা জানান বহ্নিদেবী। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশের সাইবার ক্রাইম সেলে তিনি অভিযোগ করেছেন। বহ্নিদেবী জানান, তাঁর মোবাইলে একটি ই-ওয়ালেটের অ্যাপ ডাউনলোড করা আছে। কিন্তু সেটি তিনি আদৌ ব্যবহার করেন না। পুলিশকে তিনি জানিয়েছেন, তাঁর কাছে ব্যাংক সংক্রান্ত কোনও ফোন কল বা ম্যাসেজ আসেনি। কোনও কোন OTP-ও চাওয়া হয়নি। এরপরও কীভাবে এক রাতের মধ্যে দফায় দফায় এতগুলো টাকা তার অ্যাকাউন্ট থেকে বের হয়ে গেল? তা তিনি কোনওমতেই বুঝতে পারছেন না।

Mailing List