সবং এর মাদুর শিল্পীদের জন্য সুখবর, রুইনানে মাদুর হাব তৈরি করতে বরাদ্দ হল প্রায় ৫ কোটি টাকা

সবং এর মাদুর শিল্পীদের জন্য সুখবর, রুইনানে মাদুর হাব তৈরি করতে বরাদ্দ হল প্রায় ৫ কোটি টাকা
20 May 2022, 07:00 PM

সবং এর মাদুর শিল্পীদের জন্য সুখবর, রুইনানে মাদুর হাব তৈরি করতে বরাদ্দ হল প্রায় ৫ কোটি টাকা

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান হল পশ্চিম মেদিনীপুরের মাদুর শিল্পীদের। সবংয়ে মাদুর হাব তৈরীর জন্য রাজ্য সরকারের ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্প দফতরের পক্ষ থেকে ৪ কোটি ৯৯ লক্ষ ৯৭ হাজার ২৯৩ টাকা বরাদ্দ করা হল।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, সবং থানার রুইনানে দুই একর জমির ওপর এই মাদুর হাব তৈরি হবে। গোটা বিষয়টিকে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করে সবংয়ের বিধায়ক তথা রাজ্যের জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া। তিনি বলেন, “ওই এলাকার প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষ মাদুর শিল্পের সঙ্গে যুক্ত। এই মাদুর হাব তৈরি হয়ে গেলে কয়েক লক্ষ মাদুর শিল্পী উপকৃত হবেন। আমরা সবংয়ের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। আমরা তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ।”

এব্যাপারে সবংয়ের বিধায়ক মানস ভুঁইয়া বলেন, সারা ভারতবর্ষে যে পরিমাণ মাদুর তৈরি হয় সবংয়ে তার ৫২ শতাংশ মাদুর তৈরি হয়। সবংয়ে ৩ লক্ষ মানুষের বসবাস। তার মধ্যে ৮০ শতাংশ মাদুর শিল্পের উপর নির্ভরশীল। এর ফলে শুধু সবং নয়, আশপাশের যত মাদুর শিল্পী রয়েছেন, সবাই উপকৃত হবন। আর মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই মাদুর হাব তৈরির দাবি জানিয়েছিলেন সবংয়ের আগের বিধায়ক গীতা ভুঁইয়া। এই হাবে অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে মাদুর তৈরি ও মাদুর তৈরির জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বলেও জানান মানস ভুঁইয়া।

সবং ব্লকে মোট তেরোটি গ্রাম পঞ্চায়েত। ব্লকের অধিকাংশ মানুষই যুক্ত মাদুর শিল্পের সঙ্গে। নিজেরাই মাদুর কাঠির চাষ করেন। তারপর নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া মেনে চাষ থেকে মাদুর তৈরির উপকরণ বানান। তারপর তৈরি করেন মাদুর। শুধু সাধারণ মাদুর তৈরি করেন তা নয়। আধুনিক মানের মাদুর তৈরি হয়। যার জনপ্রিয়তা রয়েছে দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও। সবংয়ের বহু মাদুর শিল্পী একাধিক পুরষ্কারও পেয়েছেন। এমনকী, কয়েকজন রাষ্ট্রপতি পুরষ্কারপ্রাপ্ত শিল্পীও রয়েছেন। এবার হাব তৈরি হলে এই শিল্পের প্রসার আরও বাড়বে বলেই সকলের অভিমত।

ads

Mailing List