প্রশ্নোত্তরে ভূগোল শিক্ষা: উত্তর ও দক্ষিণ ভারতের নদীর বৈশিষ্ট্য

প্রশ্নোত্তরে ভূগোল শিক্ষা: উত্তর ও দক্ষিণ ভারতের নদীর বৈশিষ্ট্য
04 Dec 2022, 10:55 AM

প্রশ্নোত্তরে ভূগোল শিক্ষা: উত্তর ও দক্ষিণ ভারতের নদীর বৈশিষ্ট্য

দীপান্বিতা ঘোষ

 

প্রশ্ন: উত্তর ভারতের নদীগুলোর বৈশিষ্ট্য লেখ:

উত্তর ভারতের প্রধান প্রধান নদী গুলি হল গঙ্গা, সিন্ধু ,ব্রহ্মপুত্র এবং তাদের বিভিন্ন শাখা ও উপনদী।এদের মূল বৈশিষ্ট্যগুলি হল—--

(i)উৎস:

উত্তর ভারতের নদনদী গুলি প্রধানত হিমালয় পর্বতমালা থেকে উৎপন্ন। হিমালয়ের উত্থানের আগেও কিছু নদীর অস্তিত্ব ছিল,তাই নদীগুলি পূর্ববর্তী প্রকৃতির ।

(ii) প্রকৃতি:

উত্তর ভারতের নদনদীগুলি হিমবাহের জলে পুষ্ট,তাই নিত্যবহ নদী।

(iii)গতিপথ:

উত্তর ভারতের নদীগুলির উচ্চ, মধ্য, নিম্ন তিনটি গতিই সুষ্পষ্ট, তাই আদর্শ নদী।

(iv)দৈর্ঘ্য;

উত্তর ভারতের নদীগুলি অধিক দৈর্ঘ্যের যেমন,গঙ্গা নদী 2620 কিমি।

(v)উপনদীর সংখ্যা:

উত্তর ভারতের নদীগুলিতে উপনদীর সংখ্যা অনেক বেশি।

(vi) নাব্যতা:

উত্তর ভারতের নদীগুলি উচ্চগতিতে খরস্রোতা হলেও সমভূমি প্রবাহে গতিবেগ কম হওয়ায় নাব্যতা বেশি।

(vii) গতিবেগ:

উত্তর ভারতের নদীগুলি পার্বত্য অঞ্চলে তীব্র বেগ সম্পন্ন হলেও মধ্য ও নিম্ন গতিতে ধীরগতি সম্পন্ন।

(viii)অববাহিকার আয়তন:

উত্তর ভারতের নদী অববাহিকার আয়তন খুব বেশি।

(ix)কার্যক্ষমতা:

উত্তর ভারতের নদীগুলিতে ক্ষয় ও সঞ্চয় ক্ষমতা বেশি।

(x)ভূমি ভাগের প্রকৃতি:

উত্তর ভারতের নদীগুলি কোমলশিলার উপর দিয়ে প্রবাহিত।

(xi) বয়স:

উত্তর ভারতের নদীগুলি বয়সে নবীন।

(xii)বদ্বীপ:

উত্তর ভারতে নদী মোহনায় বিশাল আকৃতির বদ্বীপ গড়ে উঠেছে।

(xiii)জলের পরিমাণ:

উত্তর ভারতের নদীগুলি বৃষ্টির জল আর বরফ গলা জলে পুষ্ট,তাই জলের পরিমাণ বেশি ।

(xiv)গতিপথের বৈচিত্র্য:

উত্তর ভারতের নদীগুলি নবীন এবং সমভূমির উপর দিয়ে প্রবাহিত, তাই নদীবাঁক,চড়া এবং অশ্বক্ষুরাকৃতি হ্রদ দেখা যায়।

 ..................

প্রশ্ন: দক্ষিণ ভারতের নদীগুলির বৈশিষ্ট্য লেখ:

দক্ষিণ ভারতের প্রধান নদীগুলো হল মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা ও কাবেরী।এদের মূল বৈশিষ্ট্য গুলি হল —---

(i)উৎস:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি প্রধানত মধ্য-ভারতের উচ্চভূমি থেকে উৎপন্ন। ভূমির প্রাথমিক ঢাল অনুযায়ী প্রবাহিত হওয়ায় নদীগুলি অনুগামী প্রকৃতির।

(ii) প্রকৃতি:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি বৃষ্টির জলে পুষ্ট,তাই অনিত্যবহ নদী l

(iii)গতিপথ:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলির গতিপথের বিভিন্ন পর্যায়(উচ্চ, মধ্য, নিম্ন গতি) অস্পষ্ট।

(iv)দৈর্ঘ্য:

তুলনামূলকভাবে দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি কম দৈর্ঘ্যের। যেমন গোদাবরী1465 কিমি।

(v)উপনদীর সংখ্যা:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলিতে উপনদীর সংখ্যা অনেক কম।

(vi) নাব্যতা:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি সর্বত্রই খরস্রোতা বলে নাব্যতা কম।

(vii) গতিবেগ:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলিতে উৎস থেকে মোহনা পর্যন্ত প্রায় সব জায়গায় নদীগুলির বেগ বেশী।

(viii)অববাহিকার আয়তন:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলির অববাহিকার আয়তন অনেক কম।

(ix)কার্যক্ষমতা:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলিতে ক্ষয় ও সঞ্চয় ক্ষমতা কম।

(x)ভূমি ভাগের প্রকৃতি:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি কঠিন শিলার উপর দিয়ে প্রবাহিত।

(xi) বয়স:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি বয়সে প্রবীণ।

(xii)বদ্বীপ:

দক্ষিণ ভারতের সব নদীতে বদ্বীপ নেই।

(xiii)জলের পরিমাণ:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি কেবলমাত্র বর্ষার জলে পুষ্ট,তাই জলের পরিমাণ অনেক কম।

(xiv)গতিপথের বৈচিত্র্য:

দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি প্রবীণ এবং গতিপথ পরিবর্তন করে না ফলে মিয়েন্ডার,চড়া অশ্বক্ষুরাকৃতি হ্রদ দেখা যায় না।

লেখক: ভূগোলের শিক্ষিকা, নান্দারিয়া হাইস্কুল, শালবনি, পশ্চিম মেদিনীপুর:

****************************

Mailing List