আসানসোল পুলিশের জালে  জামতাড়া গ্যাং-এর চারজন , উদ্ধার বিপুল পরিমাণ টাকা

আসানসোল পুলিশের জালে  জামতাড়া গ্যাং-এর চারজন , উদ্ধার বিপুল পরিমাণ টাকা
01 Jul 2021, 05:17 PM

আসানসোল পুলিশের জালে  জামতাড়া গ্যাং-এর চারজন , উদ্ধার বিপুল পরিমাণ টাকা

 

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: আগেও অনেকবার আসানসোল এবং  আসানসোল লাগোয়া এলাকাতে এসে ‘অপারেশন’ চালিয়েছে জামতাড়া গ্যাং। কখনও এটিএম থেকে টাকা তুলে নিয়েছে, কখনও বা জাল এটিএম কার্ড ব্যবহার, আবার কখনও বা নানা অসাধু উপায়ের সাধারণ মানুষের, বিশেষ করে বয়স্কদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফাঁকা করে দিয়েছে। 

যেহেতু এই এলাকা থেকে দেওঘর এবং জামতাড়া এলাকা খুব দূরে নয় এবং সহজেই এসে কাজ হাসিল করে পালিয়ে যাওয়া যায়, তাই এই এলাকাকে  নিজেদের ‘অপারেশন’  করার জন্য বেছে নিয়েছিল এই জামতাড়া গ্যাং। এবার এই আসানসোল এলাকার পুলিশের কাছেই ধরা পড়ে গেল এই গ্যাং-এর চারজন। তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা,  বেশ কিছু এটিএম-ডেবিট কার্ড এই সব পাওয়া গিয়েছে।

তবে এই গ্যাংয়ের মূল পান্ডা,  মহম্মদ ফুরকান, এখনও ধরা পড়েনি। তার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। ফুরকানকে ধরার জন্য সাহায্য নেওয়া হচ্ছে ঝাড়খন্ড পুলিশের বলেও জানিয়েছেন আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিকরা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশের জালে ধরা পড়ে এই এটিএম ৪ জালিয়াত। তবে এই চক্রের মূল পান্ডা এখনও পলাতক।  বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হলে ওই  ৪ জনের ৭ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  মঙ্গলবার রাতে টহল দেওয়ার সময় আসানসোলে(Asansol) রেলের ডিআরএম অফিসের কাছে একটি এটিএমের সামনে ওই চারজনকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখে পুলিশ।  সন্দেহ হওয়ায় তাদের জিজ্ঞাসা করতেই তারা পালানোর চেষ্টা করে। দৌড়ে তাদের ধরে ফেলে পুলিশ। এরপর জিজ্ঞাসাবাদ করতেই বেরিয়ে আসে তাদের আসল পরিচয়।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ওইসব জালিয়াতরা ঝাড়খন্ড ও বিহার থেকে আসানসোলে এসে বিভিন্ন এটিএম কাউন্টারগুলি থেকে টাকা তুলে নিত। ওই চারজনের কাছ থেকে নগদ ২ লক্ষ ১০ হাজার টাকা,  ২০টি ডেবিট কার্ড,  ২০টি সিমকার্ড ও ৬টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে একজনের বাড়ি জামতাড়া(Jamtara) ও অন্য ৩ জনের বাড়ি দেওঘরে।

 

ads

Mailing List