লক্ষণ কিস্কুর পাঁচটি কবিতা

লক্ষণ কিস্কুর পাঁচটি কবিতা
14 Jun 2020, 09:45 AM

লক্ষণ কিস্কুর পাঁচটি কবিতা

 

অঞ্জলি 

কাজহারা শ্রমিকের দল

হংস বলাকার মতো

চলেছে নিজের ঠিকানা,

শিকারীর ফাঁদে পড়ে 

মাটিতে প্রাণ গড়াগড়ি করে

কেও বাড়ি ফেরে

কেও গাড়ী চাপা মরে।

এল ঘরে শব দেহ

দুয়ারে দাঁড়ায়ে নেই কেহ,

মুখ ঢাকা- বুক ফাটা কান্না

ঝরা ফুল চাই না --

আমার জীবনও

যায় যাক না।

হাহাকার জীবন লয়ে

স্মৃতি খানি বয়ে

কী আশায় বাঁধি খেলা ঘর।

 

 

 

 

করোনাজীন

-------------- 

 

কোথায় তোমার জন্ম? ছলনাময়ী,

কেন করো কণ্ঠরোধ? মানব তনু

থরথর কাঁপি, তড়িৎ চমকিয়া

যথা- জীবকুল; জলধি বরষণে

ভাঙে বাড়ি ঘর, আপন যেন পর। 

পৃথ্বী জুড়ে হাহাকার, ছিন্ন সেতার

বিরহ বিধূ, বাজেনা মধুর সুর

দূরদর্শন বেতার --  বিষাদবার্তা।

 

লাশ যেন ঝরা ফুল, মেঘ চাদর

গায়ে ঢাকা; যায় না শোনা কান্না রোল।

জানি আমি। বিশ্ব সংসার গেছে ভেঙে

দূর্ণিবার করোনাজীনের তান্ডবে।

হে ত্রাস! ঠাঁই নাই আর জীব দেহে।।

 

   কবি 

----------

 

কবি। তুমি নবী,

পটে লেখ জীবন ছবি।

তুমি পাষাণ পাথর ভেঙে

আনো প্রবল জোয়ার;

শব্দরা নেচে নেচে

যায় ভেসে,

ডিঙি বেয়ে

দুর করে জঞ্জাল।

 

তুমি। ধূসর ধরণী তলে

হানো বৃষ্টি।

কিবা তোমার সৃষ্টি

হাসে তৃণ-তরুদল!

 

ঝিমন্ত গাছ, শুকনো ফুল

তোমার ছোঁয়ায় 

মাথা তুলে হাসে,

মায়ের কোলে

নির্মল শিশু

মিটিমিটি চাহে

মিষ্টি হাসি দিয়া।

 

কবি। ঝড়ের মাঝে

তোমার কবিত্ব

চিরজীবী হবে,

গাঁথা রবে

হৃদয় মাঝে।

 

 

জীবন নদ

------------------

 

 ধরা ধামে চলে কলু কুলু ভাষে

ঢেউ খেলা মাঠে খিল খিল হাসে

কানে কানে যেন কত কথা বলে

বুকে ওঠে ঢেউ বাধা পলে পলে

হাতে হাত রেখে ডাকে আরো কাছে 

বুকে বুক রেখে দুর্বা দল পিছে

মিলিবে মিলাবে নিজ স্বপ্ন হিয়া

মাঠ ভরা সোনার ফসল দিয়া।

 

মর মর আজ তরু-তৃণ দল 

ঝরে পড়ে শাখি ভরা ফুল-ফল

 

বুঝেও বুঝেনা  দেশের মানুষ

দেখেও দেখেনা -- কত অমানুষ

স্বচ্ছ বুকে বিষাক্ত কদম ফেলে

নিজ বাসভূমে মৃত্যু কোলে ঢলে। 

 

 নদ-নদী চলে আঁকা বাঁকা পথে

রত্ন ভান্ড ভরা; বহে স্বর্ণ রথে।

কি যে করি ভেবে নাহি পায় হৃদে

ছল ছল -- হায়রে জীবন নদে!

 

 

 

 

 

বিভা

-----------

 

 

প্রেম। হৃদয়ে অচিন পাখি জাগিয়ে

চলে গেলে --  সাগরে ঢেউ তুলে দিয়ে।

কত নিষ্ঠুর তুমি? বুকে দিলে ব্যাথা 

মনে মনে গাঁথামালা -- মিলন কথা 

কুড়িয়ে ঝরা ফুল -- রচে যাই হেথা।

 

প্রেম। তুমি কি আছ ফুলের আড়ালে? 

মধুকর চুমু দেবে কোমল গালে।

খুঁজি দীপশিখায় --  সাগর কীনারে

রিক্ত হৃদয় -- সিক্ত করিবার তরে।

মুক্ত গগনে চাঁদে যেরূপ কিরণ 

আমার আঁখি পানে তুমি মেঘবরণ

অকপটে কবুল করি দীপ্যমান

সলতে সমেত জ্বলন অনেক্ষণ। 

 

------------

লেখক পেশায় স্কুল শিক্ষক।

Mailing List