আসানসোলের বন্ধ খনিতে আগুন, ধসে তলিয়ে গেলেন ইসিএল আধিকারিক

আসানসোলের বন্ধ খনিতে আগুন, ধসে তলিয়ে গেলেন ইসিএল  আধিকারিক
01 Jan 2022, 03:04 PM

আসানসোলের বন্ধ খনিতে আগুন, ধসে তলিয়ে গেলেন ইসিএল  আধিকারিক

 

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন : গত কয়েকদিন ধরেই আগুন জ্বলছে আসানসোলের কেন্দা কয়লাখনিতে। ইসিএলের দুই নম্বর কেন্দা কয়লাখনিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করে  কর্তৃপক্ষ। সেই সময়েই ঘটে দুর্ঘটনা। সেখানে  ধস নামায় তলিয়ে গেলেন ইসিএলের  এক আধিকারিক।  

দুই নম্বর পিটে আগুন লাগায় সেই খনিমুখ বন্ধ করার কাজ চালাচ্ছিল ইসিএল কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার রাতে সেই কাজের পরিদর্শনের সময় হঠাতই ধস নেমে তলিয়ে যান  ওভারম্যান অজয় মুখোপাধ্যায়।       উদ্ধারকাজ শুরু হলেও এখনও তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

এলাকার মানুষের দাবি, এর আগেও একইরকম ঘটনা ঘটে ওই এলাকায়। এই দুর্ঘটনাস্থল থেকে তিন কিলোমিটার দূরে একটি খোলামুখ খনি ছিল। সেখানেও একই ঘটনা ঘটে। সেই সময় এই এলাকার যিনি জেনারেল ম্যানেজার  ছিলেন, তার সঙ্গেই পরিদর্শনে যান সুভাষ গৌর নামের একজন এবং এক নিরাপত্তারক্ষী। তাঁরাও একই ভাবে তলিয়ে গিয়েছিলেন।

কেন্দা খনির এক শ্রমিক বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা বাতি ঘরে খোঁজখবর নিয়ে দেখতে পাই বাতি ঘরে অজয় বাবুর ইস্যু করা বাতি জমা পড়েনি। অজয় বাবু মাটি ভরাট করার কাজের দায়িত্বে ছিলেন। তাই অনুমান করা হচ্ছে অজয়বাবু মাটির নীচে পড়ে গিয়েছেন।’

জামুড়িয়া বিধায়ক হরে রাম সিং বলেন, অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা।

এদিকে বারবার আগুন ও ধসের জেরে আতঙ্কিত গোটা গ্রামের মানুষ। কেন্দা গ্রাম রক্ষা কমিটি বারবার পুনর্বাসনের দাবি জানালেও মেলেনি পুনর্বাসন বলে জানান তাঁরা । কাছেপিঠে রয়েছে শালডাঙ্গা গ্রাম। স্থানীয়দের আশঙ্কা মাটির তলায় ওই আগুন  নিভে গেলে  ভূগর্ভস্থ কয়লা ছাই হবে এবং শূন্যস্থান তৈরি হবে। তখনই ধস নামতে পারে এলাকায়। আরও বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন তাঁরা।

 

ads

Mailing List