ব্যাঙের যৌনসঙ্গমের কথা শুনেছেন কখনও! তা নাকি হয় গাছে? অদ্ভূত সত্য কাহিনী সামনে আনলেন গবেষকরা

ব্যাঙের যৌনসঙ্গমের কথা শুনেছেন কখনও! তা নাকি হয় গাছে? অদ্ভূত সত্য কাহিনী সামনে আনলেন গবেষকরা
22 Sep 2022, 12:10 AM

ব্যাঙের যৌনসঙ্গমের কথা শুনেছেন কখনও! তা নাকি হয় গাছে? অদ্ভূত সত্য কাহিনী সামনে আনলেন গবেষকরা

 

নিলয় মন্ডল ও রাকেশ ঘোষ

 

ব্যাঙ এর প্রজনন সংক্রান্ত প্রাথমিক ধারণা স্কুলের ব্যাগ পিঠে ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই মাথায় ঢোকে| "ব্যাঙ জলে ডিম পাড়ে, তা থেকে ব্যাঙাচি উৎপন্ন হয়" - কথাটি এক লাইনের। কিন্তু প্রক্রিয়াটি বেশ জটিল| প্রায় সমস্ত ব্যাঙের ক্ষেত্রে ডিম্ব নিষিক্তকরণ প্রক্রিয়াটি দেহের অভ্যন্তরের পরিবর্তে দেহের বাইরে ঘটে - বহিঃ নিষেক। স্ত্রী ব্যাঙটি ডিম নিঃসরণ করা মাত্রই সমসময়ে পুরুষ ব্যাঙটিকে শুক্রাণু নিক্ষেপণ করতে হয়| শুক্রানুটি সঠিকভাবে পৌঁছে দেওয়ার জন্য পুরুষ ব্যাঙটি স্ত্রী ব্যাঙের  পিঠে উঠে গিয়ে পেছনের পা দুটো দিয়ে আলিঙ্গন করে থাকে, তাদের এই দেহভঙ্গি 'এমপ্লেক্সস' নামে পরিচিত| ঘন্টার পর ঘন্টা কখনও বা একদিন এভাবেই থাকতে হয় পুরুষ ব্যাঙটিকে, এই সময়ে স্ত্রী ব্যাঙটি ডিম নিঃসরণ করে|

বুদবুদের বাসা

 এগুলি "আর্বোরিয়াল ফ্রগ" যার অর্থ হল গাছে বসবাসকারী| তাদের গেছো পরিবেশে যেতে সাহায্য করার জন্য তাদের হাতের এবং পায়ের আঙুলের ডোগার দিকে সামান্য ফোলা স্টিকি প্যাড রয়েছে| পুরুষ ব্যাঙ গুলি ঘাস থেকে প্রায় এক মিটার উপর থেকে ডাক দেয়|"আসাম এশিয়ান ফ্রগ", "আসাম ট্রি ফ্রগ", "আন্যান্ডেলে ট্রি ফ্রগ" প্রভৃতি নামে পরিচিত| এই ছোট ব্যাঙ উত্তর-পূর্ব ভারতের আসাম, মিজোরাম, পশ্চিমবঙ্গ (পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনি এবং আড়াবাড়ি) সহ বাংলাদেশে পাওয়া যায়|

দ্বিতীয় দিনে অল্প রং পরিবর্তন

এই ধরণের গেছো ব্যাঙ যেমন 'Chirixalus simus' এর এক বিশেষ প্রজনন প্রক্রিয়া হল 'ফোম নেস্ট '| স্ত্রী ব্যাঙটির ডিম্বনালী থেকে এক প্রকার বিশেষ তরল নিঃসৃত হয় এবং জল যেটিকে পা দিয়ে ঘষে বা ক্রমাগত ঠেলে অসংখ্য বুদবুদ সৃষ্টির মাধ্যমে এই ফোম নেস্ট তৈরি করা হয়|

রাতের অন্ধকারে বাসা তৈরি হচ্ছে

বর্ষার ঠিক শুরুতেই এরা প্রজনন ক্রিয়া সম্পন্ন করে এবং ফোম বল গুলিও চোখে পড়ে| জমে থাকা জল বা পুকুরের পাশে থাকা কোন গাছ (আপাং, ভূতভৈরবী ও জাম) থেকে এই নেস্ট গুলি ঝুলে থাকে যা জল থেকে প্রায় ৪০ ইঞ্চি উপরেও হয়|

বাসার নিচে জমে থাকা জল

প্রায় ৪৮ ঘণ্টার মাথায় এই নেস্ট গুলি নিচের জলে পড়ে যায়| নিষিক্ত ডিমগুলি থেকে ব্যাঙাচি উৎপন্ন হওয়ার জন্য সঠিক আর্দ্রতা, তাপমাত্রা প্রয়োজন হয়| ডিমগুলি থেকে ব্যাঙাচি হতে কয়েক দিন, আবার কখনও কখনও এক সপ্তাহের বেশি সময় লেগে থাকে| ব্যাঙের প্রজনন প্রক্রিয়ায় 'ফোম নেস্ট' প্রকৃতির এক অনন্য সৃষ্টি|

প্রজননের আগে পুরুষের ব্যস্ততা

ফোম নেস্ট নিয়ে কাজ করতে গিয়ে দেখেছি বিশেষ কয়েকটি গাছের পাতাতে এরা এই বিশেষ প্রজনন কার্যকলাপ করতে পছন্দ করে। উষ্ণতা ও আর্দ্রতা এই নেস্টগুলির ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ব‍্যাঙাচি

স্ত্রী ব্যাঙ। ডিম্বনালী‌ থেকে বিশেষ ক্ষরণের মাধ্যমে বাসা তৈরির কাজ শুরু করতে পারে

সেই সঙ্গে ঝুলতে বাসার নিচের জলে অন্যান্য ব্যাঙ এবং সাপেরও আনাগোনা লক্ষ্য করা গেছে। যা সম্ভবত ফোম নেস্ট জলে পড়লে খেতে আসার কারণে। আমরা ফোম নেস্ট সংগ্রহ করে আকোয়ারিয়ামে কৃত্রিম ভাবে বাঙাচির বৃদ্ধি ঘটিয়েছি এবং চমকে ওঠার মতো কিছু বৃদ্ধির পর্যায় দেখেছি। যা প্রকাশনার অপেক্ষায়।

মূল গবেষণায় ড. সুমন প্রতিহার

Mailing List