গঙ্গায় জল বাড়তেই শুরু ভাঙন, মানিকচকের গঙ্গা ভাঙন পরিদর্শনে মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন

গঙ্গায় জল বাড়তেই শুরু ভাঙন, মানিকচকের গঙ্গা ভাঙন পরিদর্শনে মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন
07 Aug 2022, 08:12 PM

গঙ্গায় জল বাড়তেই শুরু ভাঙন, মানিকচকের গঙ্গা ভাঙন পরিদর্শনে মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন

 

নারায়ণ সরকার, মালদা

 

গঙ্গায় জল বাড়ার সাথে সাথেই শুরু হয়েছে ভাঙন। রাজ্য সেচ দফতরের উদ্যোগে ভাঙ্গন রোধের কাজও শুরু হয়েছে যুদ্ধকালীন তৎপরতায়। এবার মানিকচকের সেই ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শ করলেন রাজ্যে সেচ দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মালদহ জেলাশাসক নীতিন সিঙ্গানিয়া, জেলা পুলিশ সুপার প্রদীপ কুমার যাদব, সেচ দফতরের নির্বাহী বাস্তুকার উত্তম পাল, বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র সহ অন্যান্য আধিকারিকেরা।

এদিন মন্ত্রী সহ জেলা প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা মানিকচকের নারায়ণপুর, গোপালপুর, ব্রজলালটোলা এলাকা পরিদর্শন করেন। কথা বলেন সাধারণ মানুষের সাথে। নারায়ণপুরে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে অস্থায়ীভাবে ভাঙন রোধের কাজ শুরু হয়েছে। সেই কাজও খতিয়ে দেখেন তারা। পাশাপাশি মানিকচকের গোপালপুর, ব্রজলালটোলায় ভাঙ্গন রোধের জন্য ২০ কোটি টাকার প্রস্তাব পাঠিয়েছেন সেচ দফতর। মন্ত্রী সহ জেলা প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা লঞ্চে চেপে মানিকচকের বিভিন্ন ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন।

গত বৃহস্পতিবার মানিকচকের পশ্চিম নারায়ণপুর ও শুক্রবার গোপালপুরের বালুটোলা এলাকায় আচমকায় ব্যাপক ভাঙ্গন শুরু হয়। গঙ্গাগর্ভে তলিয়ে যায় নদী তীরবর্তী বিস্তীর্ণ এলাকা। ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়ে পরতেই ঘরবাড়ি ভেঙ্গে মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে নিরাপদ স্থানে যেতে শুরু করেন এলাকাবাসীরা। এবিষয়ে রাজ্যের সেচ, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতর ও স্বনির্ভর গোষ্ঠী দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন জানান, ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে অস্থায়ীভাবে ভাঙ্গন রোধের কাজ শুরু হয়েছে। শুখা মরশুমে স্থায়ীরুপে ভাঙন প্রতিরোধের কাজ শুরু হবে।

Mailing List