টুথপিক ব্যবহারে দাঁতের সমস্যার কি কি ঝুঁকি বাড়তে পারে, জানেন?

টুথপিক ব্যবহারে দাঁতের সমস্যার কি কি ঝুঁকি বাড়তে পারে, জানেন?
24 Sep 2022, 09:01 PM

টুথপিক ব্যবহারে দাঁতের সমস্যার কি কি ঝুঁকি বাড়তে পারে, জানেন?

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: দাঁত পরিষ্কারের জন্যে টুথপিককে সুবিধাজনক মনে হলেও এটা মোটেও নিরাপদ উপায় নয়। দাঁতের ক্ষতি করতে না চাইলে এর পরিবর্তে চিকিত্‍সকদের অনুমোদিত পদ্ধতি অনুসরণ করা উচিত।

টুথপিক ব্যবহারে দাঁতের যত ঝুঁকি-

মাড়িতে প্রদাহ হতে পারে: ভাঙা টুথপিক মাড়িতে প্রদাহ সৃষ্টি করতে পারে, যদি অপসারণে দেরি হয়। এটা নিজে নিজে বের করার সময় সতর্কতা অবলম্বন না করলে মাড়ির টিস্যু আরো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে এবং প্রদাহ বেড়ে যেতে পারে- যা বিপজ্জনক ও অসহনীয় হতে পারে। 

সংক্রমণ হতে পারে: অসাবধনায় টুথপিকের সূঁচালো অংশ মাড়িতে বা মুখে ভেতরে লেগে সহজেই ক্ষত হতে পারে। এই উন্মুক্ত ক্ষতে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়া এমনকি টুথপিকে লেগে থাকা ব্যাকটেরিয়া দ্বারাও সংক্রমণ হতে পারে, যদি তা পরিষ্কার স্থানে সংরক্ষণ করা না হয়। এছাড়া মুখের ভেতর প্রচুর ব্যাক্টেরিয়া তো রয়েছেই, এসবের মধ্যে ক্ষতিকারক ব্যাক্টেরিয়া সংক্রমণে ভোগাতে পারে। উন্মুক্ত ক্ষতের মাধ্যমে ব্যাকটেরিয়া ঢুকে রক্তকে দূষিত করতে পারে। এটাকে সেপ্টিসেমিয়া বলে- এসময় জরুরি চিকিত্‍সা নিতে হয়, অন্যথায় জীবনের ঝুঁকি আছে। 

টুথপিকের পরিবর্তে যা ব্যবহার করবেন: দাঁত পরিষ্কারের জন্য ডেন্টিস্ট অনুমোদিত উপায় অবলম্বন করা উচিত। এসব উপায় নিরাপদ ও টুথপিকের তুলনায় বেশি কার্যকর।

ওয়াটারপিকে জলের উচ্চ চাপে দাঁতের খাদ্যাংশ ও অন্যান্য কণা বের করা হয়। তিনি বলেন, সফট ফ্লসের ব্যবহার বা জলের চাপে দাঁত পরিষ্কার করলে মাড়ির সমস্যা বেড়ে যায় না, মাড়ির টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয় না এবং প্রদাহ ও সংক্রমণের আশঙ্কাও নেই।

Mailing List