পায়রার বুদ্ধি সম্বন্ধে জানা আছে? পাখি চিনুন, পাখি জানুন / পায়রা (Blue Rock Pigeon)  

পায়রার বুদ্ধি সম্বন্ধে জানা আছে? পাখি চিনুন, পাখি জানুন / পায়রা (Blue Rock Pigeon)   
10 Jul 2022, 01:15 PM

পায়রার বুদ্ধি সম্বন্ধে জানা আছে? পাখি চিনুন, পাখি জানুন / পায়রা (Blue Rock Pigeon)

 

নিলয় মন্ডল

 

পায়রা শুধুই একটি পাখি নয়। পায়রা নিয়ে যে কত ধরণের কথা রয়েছে তা না জানলে বিশ্বাস করা কঠিন। পায়রা কতটা বুদ্ধিমান হতে পারে, তাও হয়তো অনেকেরই অজানা।

প্রথমেই ধরা যাক আম বাঙালির কথা। বাড়িতে পায়রা থাকলে ধরে নেওয়া হয় লক্ষ্মীলাভের সম্ভাবনা। তাই পায়রা কারও ঘরে বাসা বাঁধলে কাউকে বিরক্ত হতে দেখা যায় না। কেউ কখনও ভুলেও তাড়ায় না। উল্টে পায়রাকে খাবার দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন সকলে।

সম্ভবত পায়রাই সেই পাখি, যে প্রথম মানুষের পোষ্য হয়েছিল। যিশুর জন্মের বহু পূর্বেই পায়রার সঙ্গে মানুষের সহাবস্থানের চিত্র পাওয়া যায়। শিখদের ধর্মগুরু গোবিন্দ সিং-এর বন্ধু বলেও ধরা হয় এই পাখিটিকে। এছাড়া হিন্দু মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের মধ্যেও এই পাখিটিকে যত্ন করতে দেখা যায়। পায়রা ছিল চার্লস ডারউইনের বিশেষ পছদের পাখি। এতটাই পছন্দের যে, তার একটি বইতে দুটো অধ্যায়ের গোটাটা পায়রা নিয়ে। যেখানে বিড়াল ও কুকুর নিয়ে মাত্র একটি অধ্যায়। নিকোলাস টেসলা, আইনস্টাইন যাকে মনে করতেন ‘স্মার্ট’, তারও বিশেষ ভালোবাসা ছিল একটি সাদা পায়রার ওপর।

 

পাখিদের মধ্যে পায়রা অধিক বুদ্ধিমান। তারা ‘আয়না পরীক্ষা’য় সহজেই পাশ করতে পারে। "আয়না পরীক্ষা’’ কী? এই পরীক্ষা হল, নিজেকে চেনার পরীক্ষা। মানুষ যেমন আয়নায় নিজেকে দেখে। তবে মানুষ দেখে, নিজের সাজগোজ ঠিক হয়েছে কিনা। পছন্দের মতো হয়েছে কিনা। ঠিক তেমনই আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে চেনার ক্ষমতা রয়েছে পায়রার।

এছাড়াও ছবি দেখে মানুষ চিনতে পারে পায়রা। এমনকী, ছবি দেখে সহজেই দুটো মানুষের মধ্যে পার্থক্যও বুঝতে পারে। রাস্তাঘাটের পরিচিতিও এদের মধ্যে সাংঘাতিক রকমে বর্তমান। তার প্রমাণ মেলে পাঁচ মাথার মোড়ে। পাঁচ মাথার মোড়ে মানুষও অনেক সময় খেই হারিয়ে ফেলে। কিন্তু পায়রা সেখানে এসেও বুঝতে পারে, কোন দিকে কোন গন্তব্য। ১৩০০ মাইল দূর থেকেও অব্যর্থভাবে বাসা খুঁজে ফিরে আসে।  বিজ্ঞানের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, পাষরা ক্যানসার রোগকেও চিনে ফেলতে পারে নির্ভুলভাবে।

এই পাখিটির গাঢ় নীল রঙের মাথা, গলা বুক ও ডানার রং হলদে সবজে ও গোলাপি মিশিয়ে। চোখের বর্ণ লাল এবং পায়ের রং লালচে। ঠোটের রং ধূসর কালো। বছরের যে কোনও সময় প্রজনন করতে পারে। এবং দুটি সাদা রঙের ডিম পাড়ে। বর্তমানে মানুষের জীবনের সঙ্গে মিলে যাওয়ার জন্য এরা শষ্য, বীজ ছাড়াও অন্যান্য সমস্ত খাবার থেতে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে।

Mailing List