‘দাদা’ অনুব্রত গ্রেফতার, বন্ধ শান্তিনিকেতনের সোনাঝুরির হাট! হতাশ পর্যটক থেকে শিল্পী-ব্যবসায়ীরা!

‘দাদা’ অনুব্রত গ্রেফতার, বন্ধ শান্তিনিকেতনের সোনাঝুরির হাট! হতাশ পর্যটক থেকে শিল্পী-ব্যবসায়ীরা!
13 Aug 2022, 09:45 PM

‘দাদা’ অনুব্রত গ্রেফতার, বন্ধ শান্তিনিকেতনের সোনাঝুরির হাট! হতাশ পর্যটক থেকে শিল্পী-ব্যবসায়ীরা!

 

দিব্যেন্দু গোস্বামী, বীরভূম

 

শান্তিনিকেতনের সোনাঝুরির খোয়াই হাট বন্ধ! অথচ কেউ তা জানেন না!

পর্যটকরা গিয়ে ফিরে আসছেন। বাউলরা যে হাটে গান গেয়ে কিছু রোজগার করে দিন প্রতিপালন করেন, তিনিও জানেন না। জানতেন না আদিবাসী নৃত্যশিল্পীরাও। হঠাৎ গিয়ে জানতে পারেন হাট বন্ধ।

কিন্তু কেন বন্ধ? কারণ, অনুব্রত মন্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই দুঃখে এবং কষ্টে বন্ধ। যা শুনে হতাশ সকলে। সবার বক্তব্য, দাদাকে গ্রেফতার করা হয়েছে নিশ্চয় খারাপ লাগছে। কিন্তু হাট বন্ধ বলে কেউ বলবে না। সামান্য কিছু রোজগারের আশায় বাস ভাড়া করে, টোটো খরচ করে আসা। রোজগার তো দূরের কথা। উল্টে খরচ হল। নষ্ট হল সময়।

আর পর্যটকরা বলছেন, কাল সকালে ট্রেন। ট্রেনের টিকিট বাতিল করে থাকতে গেলে কতটা ঝক্কি সকলেই জানা। কারণ, পরেরদিনই সংরক্ষিত টিকিট মিলবে কিনা কে বলতে পারে। তাছাড়াও একদিন অতিরিক্ত থাকতে হলে খরচ কত? হঠাৎ নোটিশ ছাড়াই এভাবে বন্ধ হতে পারে একটি ঐতিহ্যবাহী হাট?

প্রতিদিন কয়েক শো মানুষ আসেন এই খোয়াই হাটে। তাঁরা বিভিন্ন জিনিসের পসরা নিয়ে হাজির হন। দূর দূরান্তের মানুষ ভিড় করে এই খোয়ায় হাটে। শনিবার এবং রবিবার এই দুইদিন হাট আলাদা ঐতিহ্য বহন করে। খোয়াই হাট দেখতে এবং জিনিসপত্র কিনতে আসেন পর্যটকরাও। বিভিন্ন বাউল সম্প্রদায়ের মানুষও এখানে গান করেন। তাঁদের রোজগার হয়। হাটে যারা জিনিসপত্র বিক্রির জন্য আসে‌ন বিক্রেতারা।

কিন্তু হঠাৎ করে কেন বন্ধ হয়ে গেল এই খোয়াইয়ের হাট তার কারণ স্পষ্ট নয়। যারা মেলাকে অবলম্বন করে পেট চালান তাঁদেরও কিছু জানানো হয়নি। হঠাৎ করেই খোয়াইয়ের সোনাঝুরি হাট বন্ধ করে দিয়েছে হাট কমিটি। যদিও এই বিষয়ে মুখ খুলতে চাননি কেউই।

কি‌ন্তু আড়ালে আবডালে সকলেই বলছেন অনুব্রত মন্ডল গ্রেফতার হওকার কারণেই বন্ধ হাট। আর প্রকাশ্যে মন্তব্য না করলেও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব জানিয়ে দিয়েছেন, এদিন বন্ধের কারণ রয়েছে। কাল থেকে আবার চালু হয়ে যাবে।

Mailing List