ছটপুজোয় মানেই আনারস চাষিদের মুখে হাসি, ভালো লাভ পেল চোপড়ার আনারস চাষিরা

ছটপুজোয় মানেই আনারস চাষিদের মুখে হাসি, ভালো লাভ পেল চোপড়ার আনারস চাষিরা
24 Oct 2022, 05:45 PM

ছটপুজোয় মানেই আনারস চাষিদের মুখে হাসি, ভালো লাভ পেল চোপড়ার আনারস চাষিরা

 

তন্ময় চক্রবর্তী, চোপড়া

 

ছটপুজো মানেই আনারস চাষিদের মুখে হাসি। কারণ, এই সময় রাজ্যের বাইরেও আনারসের চাহিদা থাকে তুঙ্গে। বিশেষত, উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে। ফলে লরি লরি আনারস ভিন রাজ্যে যায়। ফলে দামও বেশ ভালো মেলে। এবছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। তাই ছটপুজো আসতেই আনারস চাষিদের মুখে চওড়া হাসি ফুটেছে।

উত্তর দিনাজপুরে ভালো আনারস চাষ হয়। অন্যান্য বছরের মতো এবারও লরিভর্তি করে চোপড়ার (Chopra) আনারস পাঠানো হচ্ছে উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে। কোনও লরি যাচ্ছে গোরক্ষপুর, বারাণসী তো কোনও লরি যাচ্ছে ছাপড়া। ছোট ছোট ব্যবসায়ীরাও ৩-৪ লরি আনারস পাঠাচ্ছেন ভিন রাজ্যে। ব্যবসায়ী ধীরেন সিং, মহম্মদ আমানুলরা জানান, এবার তাঁরা দুই থেকে আড়াইশো টন করে আনারস ভিনরাজ্যে পাঠাচ্ছেন। চোপড়া ব্লক থেকে ছটপুজো উপলক্ষ্যে প্রায় ৪-৫ টন আনারস বাইরে যায়। কালীপুজোর দু-একদিন আগে থেকেই বাইরে আনারস পাঠানো শুরু হয়। দামও মিলছে ভালো। প্রায় ১৫-১৭ টাকা কেজি।

আনারস চাষি তাপস দেবনাথ ও নারায়ণ রায়রা জানান, এখন অফ সিজিন। তবু এই সময়টার দিকে আমরা তাকিয়ে থাকি। এমনিতে এবার ভরা মরশুমে ভালো দাম মিলেছে। তার তুলনায় এই মুহূর্তে কেজি প্রতি ৪-৫ টাকা করে বেশি দাম পাচ্ছি।

 

Mailing List