রাজ্যকে এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করলো কেন্দ্র, মিটিয়ে দিল সমগ্র শিক্ষা মিশনের বকেয়া

রাজ্যকে এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করলো কেন্দ্র, মিটিয়ে দিল সমগ্র শিক্ষা মিশনের বকেয়া
05 Nov 2022, 06:45 PM

রাজ্যকে এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করলো কেন্দ্র, মিটিয়ে দিল সমগ্র শিক্ষা মিশনের বকেয়া

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: একশ দিনের কাজের টাকা বকেয়া থাকলেও রাজ্যের চাপের কাছে নতিস্বীকার করে সমগ্র শিক্ষা মিশনের বকেয়া টাকা মিটিয়ে দিল কেন্দ্র। এরাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস সরকার যাতে কেন্দ্রীয় বরাদ্দ না পায় সেই লক্ষ্যে একাধিকবার প্রকাশ্যে সরব হয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও বারেবারে কেন্দ্রের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগে সোচ্চার হয়েছেন। আর এমন সময়ই পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে এক হাজার কোটি টাকা দিল বিজেপি শাসিত কেন্দ্র সরকার। সমগ্র শিক্ষা মিশনের খাতে এই টাকা দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারকে।

নবান্ন সূত্রে খবর, রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের অধীনে চলে সমগ্র শিক্ষা মিশন। এই প্রকল্পের অধীনে স্কুলের নতুন ক্লাসরুম তৈরি, নতুন ভবন তৈরি, মডেল স্কুল তৈরি, শহর স্কুল শিক্ষার একাধিক ক্ষেত্রে কাজকর্ম পরিচালিত হয়। গত পাঁচ মাস ধরে এই প্রকল্প বাবদ রাজ্য সরকার কেন্দ্রের কাছে ৯৫০ কোটি টাকা পেত। সেই বকেয়া টাকা অবশেষে রাজ্যকে দিল কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রক। উল্লেখ্য, সমগ্র শিক্ষা মিশন প্রকল্পে কেন্দ্রের অংশীদারিত্ব ৬০ শতাংশ, রাজ্যের অংশীদারিত্ব ৪০ শতাংশ। সমগ্র শিক্ষা মিশনের টাকা কেন্দ্র সরকার গত পাঁচ মাস ধরে আটকে রেখেছিল। নবান্নের তরফে সেই বকেয়া টাকার জন্য আবেদন করা হয়েছিল। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী কেন্দ্রকে চিঠি লিখে প্রকল্পের টাকা না দেওয়ার জন্য আর্জি জানিয়েছিলেন এর আগে। এখনও একশোদিনের কাজের টাকা পাচ্ছে না রাজ্য। সেই টানা পোড়েনের মাঝে শুভেন্দুর আপত্তিকে পাত্তা না দিয়ে সমগ্র শিক্ষা মিশনে রাজ্যের প্রাপ্য টাকা দিল কেন্দ্র।

প্রসঙ্গত একশো দিনের কাজের টাকা, বাংলা আবাস যোজনার টাকা কেন্দ্র দিচ্ছে না বলে একাধিকবার সরব হয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। নবান্নের তরফে চিঠিও পাঠানো হয়েছে পাওনা টাকা চেয়ে। কিন্তু বাংলা আবাস যোজনার টাকার দাবিতে তৃণমূলের সাংসদদের এক প্রতিনিধিদল দেখা করেছিল কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরিাজ সিংহের সঙ্গে। টাকা কেন আটকে রাখা হয়েছে, সে নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়।

Mailing List