দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য রুখতে এবার সিসি ক্যামেরার নজরবন্দী শতাধিক স্টেশন

দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য রুখতে এবার সিসি ক্যামেরার নজরবন্দী শতাধিক স্টেশন
29 Jun 2020, 08:39 PM

দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য রুখতে এবার সিসি ক্যামেরার নজরবন্দী শতাধিক স্টেশন

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: করোনা আবহে বাড়ছে দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য। তাই যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে পশ্চিমবঙ্গের শতাধিক স্টেশনে তড়িঘড়ি সিসিটিভি ক্যামেরা বসাতে চলেছে রেল।

যাত্রীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে বহুদিন ধরেই রাজ্যের স্টেশনগুলিতে ‘নির্ভয়া তহবিল’ খাতে বরাদ্দ অর্থ থেকে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর পরিকল্পনা ছিল। এবার করোনা আবহে অপরাধীদের কাণ্ডকারখানা বেড়ে যাওয়ায় দ্রুত গতিতে ক্যামেরা বসানোর কাজ শুরু করেছে রেল। জানা গিয়েছে, হাওড়া ও শিয়ালদহ ডিভিশনের প্রায় ষাটটি স্টেশনে বসছে সিসিটিভি ক্যামেরা। হাওড়ার ডিআরএম ইশাক খান জানান, 'রেলটেল' এই দায়িত্ব পালন করছে।

হাওড়া ডিভিশনে ত্রিশটির বেশি স্টেশনে ক্যামেরা লাগানো হবে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য স্টেশনগুলি হচ্ছে– বেলুড় মঠ, ব্যান্ডেল, চন্দননগর, চুঁচুড়া, সিঙ্গুর, দিয়ারা, নালিকুল, শেওড়াফুলি, বেলুড়, বালি ও বর্ধমান। শিয়ালদহ ডিভিশনে দমদম, বেলঘড়িয়া, দক্ষিণেশ্বর, সোদপুর, টালিগঞ্জ, বজবজ-সহ আরও বেশ কয়েকটি স্টেশনে ক্যামেরা বসানো হবে। আপাতত ছোট স্টেশনগুলিতে ২৬টি ও বড় স্টেশনগুলিতে ৬০ বা তার বেশি সিসি ক্যামেরা বসানো হবে।

করোনা মহামারীর জেরে স্টেশন চত্বর ও তার আশপাশে যাত্রীদের নিশানা করতে পারে দুষ্কৃতীরা বলে মনে করছেন রেলের কর্তারা। তাই নজরদারি বাড়িয়ে অপরাধ দমন করার উদ্দেশ্যে ও অপরাধীকে সহজে শনাক্ত করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাজ সহজ করে তুলতে দ্রুত ক্যামেরাগুলি বসানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য, আগেই ১২ আগস্ট পর্যন্ত যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা বাতিল করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে রেলমন্ত্রক। ফলে ট্রেন চালানোর রুটিন কাজগুলির চাপ আপাতত কিছুটা কমেছে। তাই এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে দ্রুত ক্যামেরা বসানোর কাজ সেরে ফেলতে চাইছে রেল।

Mailing List