বিজেপি নেতারা গেলেই বলুন আগে টাকা দিন, মেদিনীপুরের সভা থেকে দলের কর্মীদের নির্দেশ মমতার

বিজেপি নেতারা গেলেই বলুন আগে টাকা দিন, মেদিনীপুরের সভা থেকে দলের কর্মীদের নির্দেশ মমতার
18 May 2022, 01:27 PM

বিজেপি নেতারা গেলেই বলুন আগে টাকা দিন, মেদিনীপুরের সভা থেকে দলের কর্মীদের নির্দেশ মমতার

 

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন :   জ্বালানী, ওষুধ থেকে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে ফের নিশানা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার মেদিনীপুর কলেজ ময়দানে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের কর্মী সম্মেলনে মোদি সরকারকে একপ্রকার লুঠেরা সরকার বলে অভিহিত করলেন তৃণমূল নেত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের প্রাপ্য টাকাও কেন্দ্র দিচ্ছে না, এই টাকা পাওয়া রাজ্যের অধিকারে মধ্যেই পড়ে বলেও জানান তিনি। সেই সঙ্গে দলের কর্মীদের বলেন, “ গ্রামে বিজেপি নেতারা গেলেই বলুন আগে টাকা দিন’ ।

এদিন মেদিনীপুরের ওই কর্মীসভা থেকে মমতা বলেন,  “আপনার ইনকাম ট্যাক্সের টাকা, সেস, টোল ট্যাক্সের টাকা  বাংলা থেকে তুলে নিয়ে যায় কেন্দ্র। সেই টাকা আমাদের দেয়। আমাদের যে টাকা দেওয়া হয় তা ওদের টাকা নয়। এটা আমাদের অধিকার। সাংবিধানিক অধিকার। সেটাও দেয় না, ১০০দিনের কাজের টাকাও দেয় না।  সেই টাকার মধ্যে আমরা কেন্দ্রের থেকে ৯২ হাজার কোটি টাকা পাই। সেই টাকা আমাদের দেয়নি।”

রান্নার গ্যাসের দাম, পেট্রল ডিজলের দাম নিয়ে  মমতা বলেন,  “৯২ হাজার কোটি টাকা পাই। সেই টাকাও নরেন্দ্র মোদির সরকার দেয়নি। রান্নার গ্যাসের দাম প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। যেন গ্যাস সমুদ্র। গ্যাসের ঢেউ উঠছে। মানুষের পকেট সেন্ট্রাল গভর্ণমেন্ট লুঠ করছে। ৮০০ ওষুধের দাম বাড়িয়েছে। এই সরকার মানুষ মারার সরকার। একটা কাটমানি কেউ যদি ২ ০০ টাকা নেয় সেটা চোখে দেখা যায়। আর সরকার যদি ১৭ লক্ষ কোটি টাকা কাটমানি খায় তার জন্য কত খেসারত দিতে হয় দেখুন। যখন মানুষ প্রতিবাদ করে তখনই হিন্দু মুসলমান দেখিয়ে দেবে। যখনই দেখছে গ্যাসের দাম বাড়ছে, পেট্রোলের দাম বাড়ছে একটা দাঙ্গা লাগিয়ে দাও।”

সেই  সঙ্গে তিনি বলেন, “পাঁচ মাস ধরে একশো দিনের কাজের টাকা দিচ্ছে না। কারা কাজ করে? গরিব মানুষ। কেন টাকা বন্ধ আছে জবাব চাই জবাব দাও। টাকা না দিলে ব্লকে ব্লকে প্রতিবাদ গড়ে তুলুন। ধর্ণা তৈরি করুন। বিজেপি নেতারা গেলেই বলুন আগে টাকা দিন। নাহলে তোমরা বিদায় নাও। আগামি দিন তো দেশ টাকেই বিক্রি করে দেবে এরা। কয়েকটা মিডিয়াকে পকেটে পুরে নিয়ে বলে এই খবরটা করবে, ওটা করবে না। তৃণমূলের বিরুদ্ধে খবর করো। এই তো চলছে।”

মুখ্যমন্ত্রী  বলেন,  পেট্রেল -ডিজেল থেকে ১৭ লাখ কোটি টাকা মানুষের কাছ খেকে লুঠ করেছে কেন্দ্র। এর জন্য মানুষকে কত খেসারত দিতে হয় একবার ভেবে দেখুন। লক্ষ-কোটি টাকা তুলেছে। কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই! আর প্রতিবাদ করলেই হিন্দু-মুসলমান দেখিয়ে দিচ্ছে। দাঙ্গা লাগিয়ে দিচ্ছে। ওটা খুড়োর কল।”

ads

Mailing List