আর ভিন রাজ্যে কাজে যাবেন না বলে টোটো কেনার জন্য টাকা জমিয়েছিল স্বামী, সেই টাকা নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে চম্পট স্ত্রী!

আর ভিন রাজ্যে কাজে যাবেন না বলে টোটো কেনার জন্য টাকা জমিয়েছিল স্বামী, সেই টাকা নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে চম্পট স্ত্রী!
07 Aug 2022, 07:30 PM

আর ভিন রাজ্যে কাজে যাবেন না বলে টোটো কেনার জন্য টাকা জমিয়েছিল স্বামী, সেই টাকা নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে চম্পট স্ত্রী!

 

নারায়ণ সরকার, মালদা

   

টোটো কিনবে বলে লক্ষাধিক টাকা জমিয়ে ছিল স্বামী। দিল্লিতে সেলাই কারখানায় শ্রমিকের কাজ করে তিল তিল করে বাড়িতে টাকা পাঠিয়ে ওই টাকা জমিয়ে ছিল স্বামী। কিন্তু ভাগ্যের কি করুন পরিহাস। সেই জমানো টাকা এবং বাড়িতে রাখা গয়না নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে চম্পট দিল স্ত্রী। ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকা জুড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার ভিঙ্গল গ্রাম পঞ্চায়েতের ইসাদপুর গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে দিল্লিতে সেলাই কারখানায় কাজ করত হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার ইসাদপুরের বাসিন্দা সোহরাব আলী। দিল্লি থেকে বাড়িতে টাকা পাঠাতেন। ইচ্ছে ছিল টাকা জমিয়ে টোটো কিনে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায় চালাবেন ।তাই দিয়েই রোজগার করে সংসার খরচ যোটাবেন। আর ভিন রাজ্যে কাজে যাবেন না। পরিবার ছেড়ে একা থাকবেন না। কিন্তু সেই আশায় জল ঢেলে জমানো প্রায় লক্ষাধিক টাকা নিয়ে সোহরাব আলীর স্ত্রী রুবি বিবি পালিয়ে যায়। স্বামী এবং শাশুড়ির অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই এলাকার একটি ছেলের সঙ্গে রুবি বিবি পরকিয়ায় জড়িয়েছিল। লক্ষাধিক টাকার সঙ্গে নিয়ে গিয়েছে। নিয়ে গিয়েছে বাড়িতে রাখা সোনা গয়নাও। সোহরাব আলী এবং রুবি বিবির দুই পুত্র সন্তান। রুবি তাঁর দুই পুত্র সন্তানকে শ্বশুরবাড়িতে ফেলে রেখেই পালিয়েছে বলে জানায় তার স্বামী সোহরাব।

এদিকে, নিখোঁজ স্ত্রীর খোঁজে থানায় দারস্থ পরিবারের সদস্যরা। ঘটনার অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছেন হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

Mailing List