চিনা আগ্রাসন থেকে তাইওয়ানকে বাঁচাতে পাহারায় আমেরিকা ও কানাডা  

চিনা আগ্রাসন থেকে তাইওয়ানকে বাঁচাতে পাহারায় আমেরিকা ও কানাডা   
22 Sep 2022, 09:30 AM

চিনা আগ্রাসন থেকে তাইওয়ানকে বাঁচাতে পাহারায় আমেরিকা ও কানাডা

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদনঃ এতদিন শুধু মুখেই বলছিল আমেরিকা। এবার সরাসরি চিনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ময়দানে নেমে পড়ল মার্কিন রণতরী। সঙ্গী কানাডা। দু'দেশ মিলে এবার তাইওয়ানকে পাহারা দেওয়ার কাজ শুরু করে দিল। সর্বশেষ খবর, চিনা আগ্রাসন রুখতে  তাইওয়ান প্রভালীতে টহল দেওয়া শুরু করেছে আমেরিকা ও কানাডার নৌবাহিনী। চিনা আগ্রাসনের আশঙ্কায় গত কয়েকদিন ধরেই ত্রস্ত গোটা তাইওয়ান। যে কোনও মুহূর্তে সাগর পেরিয়ে ধেয়ে আসতে পারে কমিউনিস্ট চিনের লালফৌজ। আশঙ্কায় ভুগছে তাইওয়ান। এর আগে বেজিংকে তাইওয়ান নিয়ে একাধিকবার সতর্ক করে দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এবার আর মৌখিক সতর্কতা নয়, চিনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তাইওয়ান প্রণালীতে টহল দিল আমেরিকা ও কানাডার রণতরী।

জুলাই মাসে মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের পর থেকেই আগ্রাসী হয়ে উঠেছে চিন। দ্বীপরাষ্ট্রকে ঘিরে সামরিক মহড়া চালিয়েছে লালফৌজ। সীমান্ত পেরিয়ে তাইওয়ানের ভূখণ্ডে প্রবেশ করেছে চিনা যুদ্ধবিমান। এই ঘটনার পরই দ্বীপরাষ্ট্রকে বিপুল অস্ত্রশস্ত্র দেওয়ার কথা ঘোষণা করে ওয়াশিংটন। এর মধ্যে রয়েছে ৬০টি জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ও ১০০টি আকাশ থেকে আকাশে আঘাত হানতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন স্পষ্ট জানিয়েছেন, তাইওয়ান কোনও হামলার মুখে পড়লে তার পাশে দাঁড়াবে আমেরিকা। আর সেটা যে শুধু মুখের কথা নয়, মার্কিন রণতরী নামিয়ে দিয়ে তা চিনকে সমঝে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

Mailing List