পর পর বিস্ফোরণের ঘটনার পর এবার থলে ভর্তি বোমা উদ্ধার, সেই গলসিতেই  

পর পর বিস্ফোরণের ঘটনার পর এবার থলে ভর্তি বোমা উদ্ধার, সেই গলসিতেই  
07 Apr 2021, 08:33 PM

পর পর বিস্ফোরণের ঘটনার পর এবার থলে ভর্তি বোমা উদ্ধার, সেই গলসিতেই  

 

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান

 

যত বোমা গলসিতে। পর পর বোমা বিস্ফোরণ এবং বোমা উদ্ধারের পরে এখন এই কথাই বলছেন এলাকার এবং জেলার লোকজন।

ভোটের দিন এগিয়ে আসার সাথে সাথে পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে উত্তরোত্তর বেড়ে চলেছে বোমা বিস্ফোরণ ও বোমা উদ্ধারের  ঘটনা।

পরপর কয়েকদিন বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটার পর বুধবার গলসির মসজিদপুর  গ্রামের মাঝেরপাড়ায় রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার হল তাজা বোমা। এই ঘটনা ঘিরে এলাকার বাসিন্দা মহলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে গলসি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে জায়গাটি ঘিরে রাখে। খবর দেওয়া হয় সিআইডির বোম ডিসপোজাল স্কোয়াডে।  বিকালে বোম ডিসপোজাল স্কোয়াড সেখানে এসে  বোমা গুলি উদ্ধার করে তা  নিষ্ক্রিয় করে। 

গত রবিবার রাতে গলসির আটপাড়া গ্রামের পুকুর পাড়ে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় পুলিশ ফটিক শেখ নামে এলাকার এক বাসিন্দাকে গ্রেপ্তার করে সোমবার আদালতে পেশ করে।  তারপর মঙ্গলবার বেলায় ফের বোমা বিস্ফোরণের  ঘটনা ঘটে গলসি থানারই রাইপুর গ্রামে। এই ঘটনায় পুলিশ আলিম মণ্ডল ও সুকুর মণ্ডল নামে দুই ব্যক্তিকে মঙ্গলবার রাতে রাইপুর গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। বুধবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে  তোলা হলে  দুই জনকেই ৩ দিনের পুলিশ হেপাজতের  নির্দেশ দেওয়া হয়। 

এই ঘটনার মাঝেই এদিন সকালে গলসি ২  ব্লকের মসজিদপুর গ্রামে মাঝেরপাড়ার কিছু বাসিন্দারা চাষের জমিতে যাচ্ছিলেন। তখনই  তারা রাস্তার ধারে  ফাঁকা জায়গায় একটি  একটি থলি পড়ে থাকতে দেখন। কাছে গিয়ে দেখেন  থলির ভিতরে ধানের কুঁড়ো মধ্যে বোমা ভরে রাখা আছে। দেখেই  এলাকার বাসিন্দারা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ পরে ব্যবস্থা নিয়ে বোমা উদ্ধার করে তা নিষ্ক্রিয় করে।

গ্রামবাসীরা বলেন, রোদের তাপে বোমা গুলি বাস্ট করলে বড় অঘটন ঘটে যেতে পারতো। বিধানসভা ভোটের মুখে গলসিতে এইভাবে বোমার রমরমা প্রকাশ্যে আসতে থাকায় চিন্তিত বাসিন্দারা। কোথা থেকে এই এলাকাতে আসছে, কারা এত বোমা মজুত করছে তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়ছেন গলসি থানার পুলিশ আধিকারিকরা।

Mailing List